রাজ্য

শুভেন্দু’র ধারা অব্যাহত রেখে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিলেন রাজীব! অমিতের বঙ্গ সফরে পদ্মে যোগদানের জল্পনা তুঙ্গে

তৃণমূলের অন্যতম বরিষ্ঠ নেতা শুভেন্দু অধিকারীর দলত্যাগের সময় থেকেই আলোচনায় উঠে এসেছিলেন তৃণমূলের আর এক মন্ত্রী রাজীব ব্যানার্জি। দলের বিরুদ্ধে মুখ খুলে কার্যত বিদ্রোহ ঘোষণা করেছিলেন তিনি। কিন্তু রাজীবের মত সৎ ব্যক্তিত্বকে দল ছাড়া হতে দিতে নারাজ ছিল তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। তবে রুদ্ধদ্বার বৈঠকেও মেলেনি কোন‌ও সমস্যার সমাধান। ইতিমধ্যেই ফেসবুক লাইভে এসে ও শাসক দলের অন্দরে থেকে কাজ করতে পারছেন না বলে দাগেন বনমন্ত্রী রাজীব। তবে এই ঘটনার পরই মন্ত্রিত্ব ছাড়েন তিনি। 
আর এবার শুভেন্দু অধিকারীর পথে হেঁটে বিধায়ক পদ থেকেও ইস্তফা দিলেন তিনি‌ l

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, হাওড়ার ডোমজুড়ের বিধায়ক ছিলেন তিনি। শুক্রবার বিধানসভার স্পিকারের কাছে তিনি পেশ করেন নিজের পদত্যাগপত্র। এদিন তিনি তৃণমূলের সদস্যপদও ছেড়ে দিতে পারেন বলে খবর।

তাৎপর্যপূর্ণভাবে এদিনই বঙ্গ সফরে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ্। সূত্রের খবর, রবিবার অমিতের সভাতেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় নাম লেখাবেন পদ্ম শিবিরে‌।

আজ অর্থাৎ শুক্রবার দুপুর ১২টার কিছু পরে বিধানসভায় যান সদ্যপ্রাক্তন বনমন্ত্রী। বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ইস্তফাপত্র জমা  দেন। তবে তা এখনও গৃহীত হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, রাজীবের ইস্তফাপত্র খুঁটিয়ে পড়ার পর স্পিকারের কোনও প্রশ্ন থাকলে, তাঁকে করবেন। প্রশ্নের যথাযথ উত্তর দিতে পারলেই গৃহীত হবে তাঁর পদত্যাগ পত্র। শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সুসম্পর্ক সম্পর্কে রাজ্য রাজনীতিতে সবাই অবগত।

তবে লক্ষণীয় অবিকল শুভেন্দু অধিকারীর পথে হেঁটেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় শিবির বদল করছেন। অর্থাৎ প্রথমে মন্ত্রিসভা থেকে বেরিয়ে যাওয়া, তারপর ধাপে ধাপে বিধায়ক পদ, তৃণমূলের সদস্যপদ-সহ যাবতীয় দায়িত্ব থেকে সরে আসা। আর শেষ পদক্ষেপ হিসেবে শেষমেশ অমিত শাহর হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান। এই শেষ ধাপটিই বাকি রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। জোর জল্পনা, রবিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভায় তৃণমূলের একঝাঁক হেভিওয়েট নেতা, মন্ত্রীদের দলবদলের তালিকা পয়লা নম্বরেই থাকতে চলেছে রাজীবের নাম। 

Related Articles

Back to top button