রাজ্য

তৃণমূলের কুণাল ঘোষের সঙ্গে দেখা বিজেপির রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের, কুণালের ভূয়সী প্রশংসা রূপার, আচমকা এই সাক্ষাতে তুঙ্গে নেত্রীর দলবদলের জল্পনা

তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষের (Kunal Ghosh) সঙ্গে দেখা বিজেপি নেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের (Rupa Gangaly)। দুই বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীর মধ্যে এমন সাক্ষাতের ফলে রাজ্য রাজনীতিতে শুরু হয়েছে চাপানউতোর। এই ঘটনার জেরে রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের দলবদলের জল্পনা বেশ তুঙ্গে।

বরাবরই বেশ ঠোঁটকাটা নেত্রী বলেই পরিচিত রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। এর জন্য একাধিকবার নানান বিতর্কেও জড়িয়েছেন তিনি। দলের সঙ্গেও সম্প্রতি দূরত্ব বেড়েছে তাঁর। রাজ্যস্তরের নেতাদের নিয়ে নিজের ক্ষোভ হাজির করেছিলেন তিনি। কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, “রাজনীতিতে না এলে জানাই হত না, যে কত অযথা সময় নষ্ট করে মানুষ”।

সেই সময় রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের সেই পোস্ট নিয়ে বেশ আলোচনা শুরু হয়েছিল। আর এরই মধ্যে এবার কুণাল ঘোষের সঙ্গে একই ফ্রেমে দেখা গেল তাঁকে। এর জেরে দলবদলের জল্পনা যেন আরও বাড়ল। জানা গিয়েছে, এদিন দুই নেতা-নেত্রীর মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ কথা হয়েছে। এই খবর জানাজানি হতেই এখন বড় প্রশ্ন যে রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ও কী তবে এবার তৃণমূলে যোগ দেবেন?

এই প্রসঙ্গে অবশ্য কুণাল ঘোষ জানান, “একটি অনুষ্ঠানে দেখা হয়ে গিয়েছিল বিজেপি নেত্রীর সঙ্গে। উনি আমার দিদির মতো। দেখা হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই কথাবার্তা হয়েছে। তবে সেখানে নেহাতই সৌজন্যমূলক কথা বার্তা হয়েছে। এর সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই”। সংবাদমাধ্যমকে উদ্দেশ্য করে কুণাল বারবার বলেন, “এর সঙ্গে প্লিজ রাজনীতি জুড়বেন না, এটা একেবারেই সৌজন্যমূলক কথা”।

কুণাল ঘোষের সঙ্গে দেখা হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। কুণালবাবুর ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি। জানান যে একটি অনুষ্ঠানে আচমকাই দেখা হয়েছে তাঁর সঙ্গে কুণালের। রূপা গঙ্গোপাধ্যায় এও জানান যে তিনি কুণাল ঘোষকে রাজ্যের নানান বিষয়ে বাঁশ কিছু প্রশ্ন করেছেন, আর সেসবের উত্তরও পেয়েছেন তিনি।

বলে রাখি, ২০১৫ সালে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। পথে নেমে রাজনীতি করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। ২০১৬ সালে বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেছিলেন তিনি। সে বছরই বিজেপি রাজ্যসভার সাংসদ করে তাঁকে।

Related Articles

Back to top button