সব খবর সবার আগে।

তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দের জের! ক্যানিং-এ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সভার শেষে গোলাগুলি, গুলিবিদ্ধ এক পুলিশকর্মীও

দলীয় সভা শেষ হতেই তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দের জেরে উত্তেজনা ছড়াল ক্যানিং-এর বিস্তীর্ণ এলাকায়। এর জেরে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন একাধিক সাধারণ মানুষও। গুলি লেগেছে এক পুলিশ আধিকারিকেরও। আহতদের দ্রুত ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ক্যানিং-এর নানা এলাকায় যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ হামেশাই লেগে থাকে, তা খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে বারবার। সংঘর্ষ হয় যুব তৃণমূল বনাম মূল তৃণমূল। গতকাল, রবিবার ক্যানিং-এ তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সভা ছিল। এই সভায় যোগদান নিয়েই শুরু হয় সংঘর্ষ। সভা শেষে এই দু’পক্ষের মধ্যে বিবাদ চরমে ওঠে ক্যানিং-এর গোলাবাড়িতে। এরপরই শুরু হয় গোলাগুলি।

স্থানীয় সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, দু’পক্ষই আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে। একে অপরকে লক্ষ করে চলতে থাকে গুলি। এর জেরেই গুলিবিদ্ধ হন বেশ কিছু ব্যক্তি। সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ পৌঁছয় ঘটনাস্থলে। তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে পায়ে গুলি লাগে এক পুলিশ আধিকারিকের। বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীও আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

এই ঘটনায় সম্পর্কে বিজেপির দাবী, ক্যানিং-এ তৃণমূলের মধ্যেকার ক্ষমতা দখলের লড়াই সকলেরই জানা। শাসকদল নিজেদের কর্মীদেরই নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। এর জেরে সাধারণ মানুষ হেনস্থা হন। তবে এই ঘটনায় তৃণমূলের জড়িয়ে থাকার কথাকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন দলীয় নেতৃত্ব। তাদের পাল্টা দাবী, এই ঘটনায় কোনওভাবেই তৃণমূল জড়িয়ে নেই। দুষ্কৃতীরা নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষ করেছে বলেই দাবী তাদের।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...