সব খবর সবার আগে।

বিজেপি নেতা শঙ্কুদেব পাণ্ডার সঙ্গে ‘চায় পে চর্চা’-তে পরিচালক-অভিনেতা অরিন্দম শীল, ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে জল্পনা

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে শুধুমাত্র রাজনৈতিক নেতা নয় নানান তারকাদের মধ্যেও দলবদলের হিড়িক লেগেছে। কিছু তারকা নতুন করে কোনও একটি রাজনৈতিক দলে যোগ দিচ্ছেন, আবার কেউ অন্য দল ছেড়ে এসে অন্য একটি দলে যোগ দিচ্ছেন। এই সবকিছুর মাঝে জল্পনাকে আরও উস্কে বিজেপি নেতা শঙ্কুদেব পাণ্ডার সঙ্গে ‘চায় পে চর্চা’-তে যোগ দিলেন পরিচালক-অভিনেতা অরিন্দম শীল।

আজ, সোমবার শঙ্কুদেব পাণ্ডা টুইটারে অরিন্দম শীলের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, “আজ বিকেলে অরিন্দম দার সঙ্গে চায়ে পে চর্চা। আলোচনা হল সোনার বাংলা নিয়েও”।

শঙ্কুদেব পাণ্ডার সঙ্গে অরিন্দম শীলের এই যোগাযোগকে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক মহল। কারণ, অরিন্দম শীল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেশ ঘনিষ্ঠ।

আরও পড়ুন- সতীর্থদের অনুসরণ করে এবার কি তবে অরিন্দম শীলও বিজেপিতে? মুখ খুললেন পরিচালক-অভিনেতা

এবারের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলাকে পাখির চোখ করেছে বিজেপি। তাই তৃণমূলের থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে বাংলার মাটিতে আধিপত্য বিস্তার করতে উদ্যোগী গেরুয়া শিবির। এই কারণে বেশ তোড়জোড় করে কোমর বেঁধেই ময়দানে নেমেছে তারা। ‘সোনার বাংলা’ গড়াকে লক্ষ্য করে বাংলায় ক্ষমতায় আসার চেষ্টা করছে গেরুয়া শিবির।

আরও পড়ুন- এখনও অনেক তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে তল্লাশি অভিযান চালানো বাকী রয়েছে, কয়লা পাচার কাণ্ড প্রসঙ্গে অনুপম

বলে রাখি, গত বেশ কিছুদিন ধরেই অরিন্দম শীলের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে। এমনকি, বিজেপিতে সদ্য যোগ দেওয়া অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষও বলেছিলেন যে অরিন্দম শীলও নাকি বিজেপিতে যোগ দেবেন। যদিও সেই জল্পনা উড়িয়ে পরিচালক-অভিনেতা বলেন যে তিনি রাজনীতিতে আসতেই চান না। ছবি নিয়েই থাকতে চান তিনি। কিন্তু তা সত্ত্বেও আজ বিজেপি নেতার সঙ্গে তাঁর এই আলোচনা পর্ব ফের একবার তাঁর গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়ার জল্পনায় উস্কানি দিল।

You might also like
Comments
Loading...