রাজ্য

আচমকাই নবান্নে পৌঁছলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়, সঙ্গে বান্ধবী বৈশাখী, তবে কী ফের তৃণমূলে ফিরতে চলেছেন প্রাক্তন মন্ত্রী?

অবশেষে জল্পনার অবসান ঘটিয়ে নবান্নে পৌঁছলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। সঙ্গে রয়েছেন তাঁর বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও। আজ, বুধবার দুপুর সাড়ে তিনটে নাগাদ নবান্নের চোদ্দ তলায় পৌঁছন শোভন। দেখা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। সেখানে দু’পক্ষের বৈঠক চলছে বলে খবর।

গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তবে সেভাবে তাঁকে সক্রিয় রাজনীতি করতে দেখা যায়নি। নির্বাচনের পরে বিজেপি ছাড়েন তিনি। এরপরই তাঁর তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। তবে এর আগে স্পষ্টভাবে কোনও কিছুই জানান নি তিনি।

অন্যদিকে, শোভনের বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রে তাঁর স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়কে টিকিট দিয়েছে তৃণমূল। বিধায়কও হয়েছেন তিনি। স্বামীর বিরুদ্ধে পরকীয়ায় জড়িত থাকার অভিযোগ তুলে তাঁর তৃণমূলে ফেরায় আপত্তি জানিয়েছিলেন রত্না।

সূত্রের খবর, দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূল নেতারা যোগাযোগ রাখছিলেন শোভনের সঙ্গে। বিধানসভা নির্বাচনের আগে শোভনের দলত্যাগের জেরে বেশ হইচই পড়ে গিয়েছিল। দীর্ঘদিনের বিশ্বস্ত সাথী যে দল ছেড়ে দিতে পারেন তা হয়ত খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও কল্পনা করেন নি। তবে বিজেপিতে যোগ দিয়েও সেভাবে রাজনীতিতে দেখা যায়নি শোভনকে।  

বিধানসভা নির্বাচনের আগে দক্ষিণ ২৪ পরগণার দায়িত্ব শোভনকে দেয় বিজেপি। কিন্তু সেখান থেকে টিকিট না পেয়ে মোহভঙ্গ হয় প্রাক্তন মেয়রের। এরপরই বিজেপি সঙ্গ ত্যাগ করেন তিনি। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনায় বসেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। ছাড়পত্র মিললেই তিনি যোগ দেবেন ঘাসফুল শিবিরে।

Related Articles

Back to top button