রাজ্য

ফিরল পুরনো স্মৃতি! নেতাজির মূর্তি ভেঙে দু’টুকরো করল দুষ্কৃতীরা, সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ল হিংসার ঘটনা

২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে বিদ্যাসাগর কলেজে বিদ্যাসাগরের মূর্তির উপর হামলা করা হয়েছিল। ভেঙে দু’টুকরো করে ফেলা হয়েছিল বিদ্যাসাগরের মূর্তি। সেই সময় এই নিয়ে গোটা রাজ্য তোলপাড় হয়। তৃণমূলের তরফে অভিযোগ উঠেছিল যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ্‌’র মিছিল থেকেই এই হামলা হয়েছিল। আর এবার তিন বছর পর ফের ফিরল সেই স্মৃতি।

গত বৃহস্পতিবার সোদপুরে এমন একটি ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটল, যা ফের একবার তিন বছরের পুরনো স্মৃতিকে যেন উস্কে দিল। এদিন গভীর রাতে ভেঙে দু’টুকরো করে ফেলা হল নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর একটি মূর্তি। এর জেরে গোটা এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

সূত্রের খবর, গত বৃহস্পতিবার মাঝরাতে সোদপুরের পানিহাটি এলাকার এমএন মুখার্জি রোডের ধারে স্থাপন করা নেতাজির একটি মূর্তিকে ভেঙে দু’টুকরো করে দিয়েছে এক দুষ্কৃতীর দল সঙ্ঘশ্রী ক্লাবের সামনে ছিল এই মূর্তিটি। এই গোটা ঘটনাটি ধরা পড়েছে সিসিটিভি ক্যামেরায়।

এউ ঘটনার জেরে গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারির দাবী তুলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তারাই শুক্রবার সকালে খড়দহ থানায় অভিযোগ জানান। পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। কাদের মদতে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে চারজন যুবককে চিহ্নিত করা গিয়েছে। সেদিন মাঝরাতে মদ্যপ অবস্থায় তারা নেতাজির মূর্তিতে ভাঙচুর চালায় বলে দেখা গিয়েছে সিসিটিভি ফুটেজে। এই চার দুষ্কৃতীকে চিহ্নিত করা গেলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। স্থানীয়রা কার্যত রাগে ফুঁসছেন এই ঘটনায়।

প্রসঙ্গত, বাংলার রাজনীতিতে এমন ঘটনা প্রথম নয়। এর আগে নানান মনীষী, কবি, সাহিত্যিকদের সম্পর্কে অনেক সময় অনেক ভুল তথ্য দেওয়া হয়েছে, যা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। ২০১৯ সালে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়ে গোটা রাজ্যে কার্যত চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছিল। আর এবার নেতাজির মূর্তি ভাঙার ঘটনা সামনে আসতে তা নিয়ে বেশ শোরগোল পড়েছে।

Related Articles

Back to top button