রাজ্য

‘বিজেপির কার্যকর্তারা উদ্ধারকার্যে হাত লাগিয়েছেন’, হড়পা বানের ঘটনায় শোকপ্রকাশ করলেন দিলীপ-সুকান্ত

দশমীর রাতে প্রতিমা বিসর্জনের জন্য জলপাইগুড়ির মালবাজারের অন্তর্গত মাল নদীতে পৌঁছন অসংখ্য মানুষ। কিন্তু পরবর্তীতে হড়পা বান আসার কারণে মুহূর্তের মধ্যে জলে ভেসে যান একাধিক। এই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের। এছাড়াও, আহত হয়েছেন একাধিক। এই ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার এই হড়পা বানকাণ্ড নিয়ে মুখ খুললেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

এই হড়পা বানের ঘটনায় ফেসবুকে একটি পোস্ট করে দিলীপ ঘোষ লেখেন, “দেবীর গমনের দিন বিষাদের পরিবেশ। জলপাইগুড়ির মাল নদীতে প্রতিমা বিসর্জন করার সময় হড়পা বান আসার ঘটনায় নিখোঁজ ৩০ থেকে ৪০ জন। বিজেপি কার্যকর্তারাও উদ্ধার কার্যে হাতে লাগিয়েছেন। মৃতদের আত্মা শান্তি কামনা করি। তাদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। বাকিরা যেন সুস্থ এবং অক্ষত থাকে, এটাই মায়ের কাছে প্রার্থনা করছি”।

অন্যদিকে, বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার জানান, “বিজেপির কার্যকর্তারা উদ্ধারকার্যে নিজেদের হাত লাগিয়েছেন। মৃতদের আত্মার শান্তি কামনা করছি। আহতরা যেন সুস্থ থাকেন”।

দশমীর রাতে এই হড়পা বানের ঘটনায় চারিদিকে বেশ চাঞ্চল্য ছড়ায়। বৃষ্টির কারণে সাময়িকভাবে উদ্ধারকার্য বন্ধ ছিল। পরবর্তীতে অনেক মানুষকে উদ্ধার করা গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। দুর্গা প্রতিমা বিসর্জনের সময় সেখানে সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা উপস্থিত থাকলেও কেন এই দুর্ঘটনা এড়ানো গেল না, তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

এই ডিফেন্স কর্মীর কথায়, “আমাদের কাছে কেবলমাত্র দড়ি ছিল। যদি আরো কয়েকজন কর্মী ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকত, তবে উদ্ধারকার্য আরও দ্রুত হত”।

Related Articles

Back to top button