সব খবর সবার আগে।

‘বাংলাদেশের এত বড় ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী কেন চুপ, খুব চিন্তার বিষয়’, মমতাকে তুলোধোনা সুকান্তের

বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হিংসার ঘটনা নিয়ে রাজ্য সরকারের ভূমিকায় তোপ দাগলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। বালুরঘাটের সাংসদের অভিযোগ, বাংলাদেশের ঘটনা প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন চুপ রয়েছেন?

আজ, বুধবারই বালুরঘাট থেকে কলকাতায় ফেরেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। শিয়ালদহ স্টেশনে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে  সুকান্ত মজুমদার বলেন, “এত বড় ঘটনায় তৃণমূল এবং মুখ্যমন্ত্রীর তরফে কোনও ধরনের বার্তা দেওয়া হয়নি। যে ধরণের বার্তা দেওয়া উচিত ছিল, চিন্তার বিষয় কেন সেই ধরনের বার্তা এল না”।

শাসকদলকে আক্রমণ শানিয়ে তিনি বলেন, “বাংলাদেশের ঘটনায় যে ধরণের উত্তরগুলো পাওয়া যাচ্ছে, তা পশ্চিমবঙ্গের ভবিষ্যতের জন্য অত্যন্ত চিন্তার বিষয়”। এই ঘটনায় রাজ্য সরকারের ভূমিকা নিয়ে যে বিজেপি মোটেই সন্তুষ্ট নয়, তাও জানান বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

এদিকে আবার বাংলাদেশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কেন চুপ করে রয়েছেন, এমন প্রশ্ন তোলা হয় তৃণমূলের তরফে। বাংলাদেশ প্রসঙ্গে নরেন্দ্র মোদীকে তুলোধোনা করে তৃণমূলের মুখপত্র জাগো বাংলায় লেখা হয় যে তিনি ভোটের আগে যেখানে গিয়ে প্রচার করলেন, এখন সেই বাংলাদেশ নিয়ে নীরব কেন মোদী? জাগো বাংলা সম্পাদকীয়তে বিজেপিকে কটাক্ষ করে লেখা হয়েছে যে বাংলাদেশ ইস্যু নিয়ে রাজনীতি করতে চাইছে গেরুয়া শিবির।

তৃণমূলের এই অভিযোগের পাল্টা জবাব দিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কী কথা বলেছে না বলেছে আপনারা ভবিষ্যতে ঠিক জানতে পারবেন। কিন্তু সিএএ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলতে পারেন যে আমি রাষ্ট্রপুঞ্জে যাব। কিন্তু পাশের বাংলাদেশের এত বড় ঘটনা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কিছু বলছেন না। এটা খুব চিন্তার বিষয় বলে আমার মনে হয়”।

You might also like
Comments
Loading...