সব খবর সবার আগে।

শুভেন্দুর গাড়ি আটকে কুরুচিকর স্লোগান, প্রাণনাশের হুমকি, তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের বিজেপি নেতার

ত্রিপুরার প্রভাব পড়েছে বাংলাতেও। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর গাড়ি আটকে কুরুচিকর স্লোগান, এমনকি প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সোমবার রাতের এমন ঘটনায় বেশ উত্তপ্ত হল পূর্ব মেদিনীপুরের মারিশদা এলাকা।

নন্দীগ্রামের বিধায়ককে এমন হেনস্থার অভিযোগ তুলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে মারিশদা থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন শুভেন্দুর আইনজীবী অনির্বাণ চক্রবর্তী। এই ঘটনার প্রতিবাদে আজ, মঙ্গলবার মারিশদা থানা ঘেরাও কর্মসূচি নেওয়ার কথা স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের তরফে।

ত্রিপুরার আগরতলায় পুরভোটের প্রচারে গিয়েছিলেন রাজ্য তৃণমূলের যুব সভাপতি সায়নী ঘোষ। সেখানে গ্রেফতার হন তিনি। এই নিয়ে গত রবিবার দফায় দফায় উত্তপ্ত হয় আগরতলা। বিজেপি-তৃণমূলের মধ্যে বাঁধে সংঘর্ষ। এর প্রভাব পড়ে বাংলাতেও।

তবে সোমবার সন্ধ্যে বেলা জামিনে মুক্ত হন ত্রিনমুলন নেত্রী। তবে এর আগে গতকাল, সোমবার সায়নীর গ্রেফতারির প্রতিবাদে কলকাতা ও জেলাগুলিতে বিজেপি বিরোধী বিক্ষোভে সামিল হন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা। এমনই এক মিছিল চলছিল পূর্ব মেদিনীপুরের মারিশদাতেও। এই মিছিল চলাকালীনই শুভেন্দু অধিকারীর উপর হামলার অভিযোগ ওঠে।

বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, মারিশদা থানার অদূরে শুভেন্দুর গাড়ি ঘিরে কুরুচিকর স্লোগান, প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়। অভিযোগের তিরে তৃণমূল কর্মী, সমর্থকরা। বিজেপির অভিযোগ, ত্রিপুরায় তৃণমূলের উপর হামলার বদলা নিতেই বিরোধী দলনেতাকে এভাবে হুমকি দেওয়া হল। আরও অভিযোগ, পুলিশের নাকের ডগায় অর্থাৎ মারিশদা থানার সামনেই এমন ঘটনা ঘটে গেলেও পুলিশ ছিল নীরব দর্শক।

এরপরই শুভেন্দুর উপর হামলার অভিযোগ তুলে মারিশদা থানায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে মামলা করেন শুভেন্দুর আইনজীবী। তবে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের পালটা দাবী, সায়নীর গ্রেফতারির প্রতিবাদে জেলা তৃণমূলের তরফে প্রতিবাদ কর্মসূচি চলছিল। নেতারা সেখানে বক্তব্য রাখছিলেন। সেই সময় শুভেন্দু সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন। তৃণমূল নেতৃত্বের কথায়, তাঁর গাড়ি আটকানোও হয়নি, বিক্ষোভও দেখানো হয়নি। ঘাসফুল শিবিরের দাবী, বিজেপি সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ এনেছে।

You might also like
Comments
Loading...