রাজ্য

রাজ্য-কেন্দ্রের সংঘাত তুঙ্গে! নাড্ডার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তিন আইপিএস আধিকারিককে তলব কেন্দ্রীয় ডেপুটেশনের জন্য

দিন গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ক্রমেই উত্তপ্ত হচ্ছে রাজ্য ও কেন্দ্রের মধ্যেকার সমীকরণ। আগেই রাজ্যের মুখ্যসচিব ও ডিজিকে তলব করেছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এবার তলব করা হল বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি  নাড্ডার নিরাপত্তায় থাকা রাজ্যের তিন আইপিএস আধিকারিককে। জানান গিয়েছে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক তাদের কেন্দ্রীয় ডেপুটেশনে কাজ করাতে চায়। এই কারণেই পুলিশের তিন শীর্ষ কর্তাকে ডেকে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর সূত্রে জানা গিয়েছে, তিন আইপিএস কর্তাকে ডেকে পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে। এই তিনজন হলেন ডায়মন্ড হারবারের পুলিশ সুপার ভোলানাথ পাণ্ডে, দক্ষিনবঙ্গের এডিজি রাজীব মিশ্র ও প্রেসিডেন্সি রেঞ্জের ডিআইজি প্রবীণ ত্রিপাঠী। নাড্ডার কনভয় হামলার মামলায় শনিবার আরও আটজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ফলে ধৃতের সংখ্যা বেড়ে মোট ১৫। এদিন আটজনকে আদালতে পেশ করা হয়েছে। তাদের ছ’দিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার ডায়মন্ড হারবার যাওয়ার পথে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার কনভয়ে হামলা চালানো হয়। এর জেরে বিজেপি নেতাদের একাধিক গাড়ির কাচ ভাঙে। আহত হন একাধিক বিজেপি নেতাও। রাজ্যে নাড্ডার নিরাপত্তায় গাফিলতি জানিয়ে এদিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি দেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এরপরই রাজ্যপালের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এই নিয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিব ও ডিজিকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফ থেকে তলব করা হলে তারা কেউ নির্দিষ্ট দিনে দিল্লিতে উপস্থিত থাকতে পারবেন না বলে পাল্টা চিঠি দেন কেন্দ্রকে।

এদিকে, এই তিন আইপিএস আধিকারিককে তলব করা নিয়ে রাজ্যের তরফ থেকে ফের চিঠি পাঠানো হয় কেন্দ্রকে। বলা হয়, কেন্দ কোনওভাবেই কোনও রাজনৈতিক নেতার নিরাপত্তার গাফিলতির কারণ দেখিয়ে আইপিএস আধিকারিককে কেন্দ্রীয় ডেপুটেশনে পাঠাতে পারে না। ফলে এ জেরে রাজ্য ও কেন্দ্রের মধ্যে সংঘাত চরমে উঠেছে।

Related Articles

Back to top button