সব খবর সবার আগে।

WB Election 2021: গভীর রাতে লেকটাউন, কৈখালির বিজেপি কার্যালয়ে হামলা, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ, থানায় বিক্ষোভ গেরুয়া শিবিরের

ভোটের মধ্যে ফের উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগণা জেলার একাধিক এলাকা। গতকাল, রবিবার গভীর রাতে রাজারহাট-গোপালপুর, বিধাননগর ও হাড়োয়া বিধানসভা কেন্দ্রে কয়েকটি জায়গায় বিজেপি কার্যালয় ভাঙচুর, বিজেপি দলীয় কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এর বিরুদ্ধে সরব হয়ে থানায় বিক্ষোভ দেখায় গেরুয়া শিবির। অশান্ত এই এলাকাগুলির আইনশৃঙ্খলার উপর বাড়তি নজর দেওয়া হয়েছে।

রাজারহাট-গোপালপুর ও বিধাননগর বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে দুরত্ব মাত্র কিছু কিলোমিটারের। এই দুই জায়গাতেই চরম অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি হয় গতকাল। অভিযোগ, রবিবার গভীর রাতে এই দুই বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি কার্যালয়ে হামলা চালানো হয়। জানা গিয়েছে, কৈখালির চিড়িয়ামোড়ে বিজেপির কার্যালয়ে পাথর ছুঁড়ে কাঁচ ভাঙা, বিজেপি পোস্টার-ফেস্টুন ছিঁড়ে দলীয় পতাকা পোড়ানোর অভিযোগ উঠেছে। এর বিরুদ্ধে এয়ারপোর্ট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় ও থানার সামনে বিক্ষোভও দেখান বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা।

আরও পড়ুন- অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ৯০০ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ

আবার এদিকে জানা গিয়েছে, গতকাল, রবিবার সকালে যখন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা লেকটাউন এলাকায় ফ্লেক্স, ব্যানার লাগাচ্ছিলেন, তখন তৃণমূল প্রার্থী সুজিত বসুর অনুগামীরা এসে সেই সমস্ত ছিঁড়ে ফেলে। এর জেরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ শুরু হয়। তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা হামলা চালায় বিজেপি কর্মীর উপর। এর বিরুদ্ধে লেকটাউন থানায় বিক্ষোভ দেখান বিজেপি কর্মীরা।

আরও পড়ুন- ‘বিজেপি ক্ষমতায় এলে কর্মসংস্থান হবে, নারী সুরক্ষা জোরদার হবে’, আরামবাগ থেকে আশ্বাস যোগী আদিত্যনাথের

শুধু তাই-ই নয়, হাড়োয়াতেও এই একই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। এখানেও বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে শাসকদলকেই। এর প্রতিবাদে বিজেপি সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখান। এর জেরে আজ সকালেও থমথমে গতা এলাকা।

উত্তর ২৪ পরগণা জেলার রাজারহাট-গোপালপুর, বিধাননগর, ও হাড়োয়া, এই তিন কেন্দ্রেই আগামী ১৭ই এপ্রিল ভোট। এই কেন্দ্রের এলাকাগুলি এমনিতেই স্পর্শকাতর। সারা বছরই এই এলাকায় অশান্তি লেগে থাকে। এই তিন কেন্দ্রেই চলছে তৃণমূল-বিজেপির হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। এর জেরে ক্রমশ বেড়েই চলেছে রাজনৈতিক উত্তাপ।

You might also like
Comments
Loading...