রাজ্য

বিজেপি কর্মীদের বাড়ি ভাঙচুর, করা হল শ্লীলতাহানি, তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হল থানায়

ফের শাসক দলের তাণ্ডব পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ে। এবার তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠল বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে হামলা চালানোর। এমনকি বিজেপির মহিলা সদস্যদের শ্লীলতাহানিরও অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। বিজেপির তরফ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে গতকাল সন্ধ্যাবেলায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে হামলা চালায়। মহিলা বিজেপি কর্মীদের শ্লীলতাহানি করা হয়। গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে এর ফলে তাদের ৫ জন মহিলা কর্মী সহ ৭ জন দলীয় কর্মী আহত হয়েছেন।

ঘূর্ণিঝড় আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপুরণ পাওয়া নিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বারংবার দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে রাজ্য জুড়ে। যারা প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত নন তারাই তৃণমূলের সহায়তায় টাকা পেয়েছে বলে অভিযোগ। সেই সংক্রান্ত অভিযোগ পেয়ে প্রশাসনিক আধিকারিকরা ওই এলাকা পরিদর্শনে যান। সেখানে তাদেরকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান সাধারণ মানুষ।

বিজেপির অভিযোগ এই কারণে আক্রোশবশত তাদের ওপর হামলা চালায় তৃণমূলের আশ্রিত গুন্ডারা। বিজেপির তরফ থেকে স্থানীয় থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে। অন্যদিকে তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করে জানানো হয় যে বিজেপি কর্মীরা তাদের দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুর করেছে। ‌যদিও বিজেপি তৃণমূলের এই দাবি একেবারে উড়িয়ে দিয়েছে।

আগামী বছরের বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই শাসক শিবিরের চিন্তা বাড়ছে। বিজেপির দাবি, হার নিশ্চিত জেনেই মরিয়া হয়ে তাদের উপর আক্রমণ চালাচ্ছে মমতা সরকারের লোকজন। যদিও তৃণমূল বিজেপির এইসব দাবি ফুৎকারে উড়িয়ে দিচ্ছে। তাদের বক্তব্য এগুলো বিজেপির নিজস্ব দলীয় কোন্দল, এখানে তৃণমূলকে না টানাই ভালো।

Related Articles

Back to top button