রাজ্য

টেন্ডার নিয়ে হাতাহাতিতে জড়াল তৃণমূলের দুই গোষ্ঠী, চলল ভাঙচুর, হামলা চালাল সিভিক পুলিশও

পঞ্চায়েতের টেন্ডার ফর্ম বিলিকে কেন্দ্র করে ঝামেলা। এই নিয়ে তুমুল সংঘর্ষ বাঁধল তৃণমূলেরই দুই গোষ্ঠীর মধ্যে। পঞ্চায়েতেই রীতিমতো হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দুই গোষ্ঠী। পঞ্চায়েতে চলে ভাঙচুরও। এই গোটা ঘটনায় বেশ চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

ঘটনাটি ঘটেছে মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর ২ নম্বর ব্লকের দৌলতপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। প্রবল সংঘর্ষ বাঁধলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামলায়। এই ঘটনায় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবী, দল এই ধরণের ঘটনাকে কোনওভাবেই সমর্থন করে না।

হাসানুর জামান নামে এক তৃণমূল কর্মীর অভিযোগ, “প্রত্যেকবার আমরা টেন্ডারের আবেদন করি। এবার বোর্ডেও নোটিশ টাঙানো হয়নি। বলছে নোটিশ ছিঁড়ে দিয়েছে। আমরা পঞ্চায়েতে দেড় ঘণ্টা ধরে বসে আছি। আচমকা প্রধানের লোকজন এসে আমাদের উপর হামলা শুরু করল। চেয়ার তুলে মারল। আমরা ভয়ে লুকিয়ে ছিলাম। একজন সিভিক পুলিশও সাদা পোশাকে এসে আমাদের উপর হামলা চালাল। এখানে ঝামেলা পাকিয়ে পরে আবার ইউনিফর্ম পরে চলে এল”।

অন্যদিকে দলেরই অপর গোষ্ঠীর দাবী করছে, “ওরা পঞ্চায়েতে এসে ঝামেলা করল। আমরা এর ন্যায্য বিচার চাই। তৃণমূলের জেলা মুখপাত্র শুভময় বসু বলেন, এটা হওয়া কাম্য নয়। পার্টি এটা অনুমোদন করে না”।

এই ঘটনায় বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মণ্ডল বলেন, “এটা ওদের রোজকার নাটক। যা খুশি করছে ওরা। টেন্ডার কে পাবে তা নিয়ে বর্তমান প্রধানের অনুগামীদের সঙ্গে প্রাক্তন প্রধানের অনুগামীদের গন্ডগোল। এই সংঘাত তৃণমূলের সংস্কৃতি”।

Related Articles

Back to top button