রাজ্য

কালীঘাটে মাথা কামিয়ে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন, শেষমেশ তৃণমূলও ছাড়লেন এই হেভিওয়েট নেতা

বিজেপি (BJP) ছাড়ার পর কালীঘাটে এসে মাথা ন্যাড়া করেছিলেন। আদিগঙ্গায় স্নান সেরে যজ্ঞ করে প্রায়শ্চিত্ত করেছিলেন। এরপর গত বছর দুর্গাপুজোর সময় তিনি যোগ দেন তৃণমূলে (TMC)। কিন্তু ছ’মাসের মধ্যেই মোহভঙ্গ হল তাঁর। ঘাসফুল শিবিরকেও বিদায় জানালেন এই নেতা।

আজ, শুক্রবার একটি সাংবাদিক বৈঠক করেন ত্রিপুরার সুরমার বিধায়ক আশিস দাস। সেই বৈঠকে তিনি অভিযোগ করেন যে ত্রিপুরায় ভোট ভাগাভাগি করে বিজেপিকেই সুবিধা করে দিচ্ছে তৃণমূল। আর এরপরই তিনি দলত্যাগের কথা ঘোষণা করেন। আশিস এও জানান যে তিনি যে আশা নিয়ে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন, তা পূরণ হয়নি। এই কারণেই ঘাসফুল শিবির থেকে ইতি টানলেন তিনি।

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে বিজেপি থেকে বেরিয়ে আসা আশিস বলেন, “তৃণমূলে দলবাজি বেশি। দলে আমাকে কোণঠাসা করে রাখা হচ্ছে। এখানে কাজের পরিসর নেই”। তিনি আরও অভিযোগ করেন যে ত্রিপুরার নির্বাচনে ভোট কাটাকাটি করে তৃণমূল বিজেপিকেই সুবিধা করে দিচ্ছে। আশিসের কথায়, তিনি যে উৎসাহ নিয়ে তিনি তৃণমূলে এসেছিলেন, তা হারিয়ে ফেলেছেন তিনি।

তৃণমূল সূত্রে খবর অনুযায়ী, আগামী নির্বাচনে আশিসকে সুরমা থেকে প্রার্থী করার কথা ভাবা হচ্ছিল দলের তরফে। আবার অন্য একটি সূত্রের দাবী, আশিসের প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ, তা জেনেই তিনি দলত্যাগ করেছেন।

প্রথমে কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপি আর তারপর বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল। এবার তৃণমূলও ছাড়লেন আশিস। এবার তিনি কোন দলে যাবেন, তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। তবে এই বিষয়ে আশিস কোনও মন্তব্য করতে চান নি। তাঁর কথায়, সুরমার জনগণ যদি চান, তাহলে তিনি নির্দল প্রার্থী হিসেবেও লড়তে রাজি। এই বিষয়ে তৃণমূলের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

Related Articles

Back to top button