সব খবর সবার আগে।

WB Election 2021: সিপিএমকে ভোট দিলে হাত কেটে নেব, হুমকি তৃণমূল নেতার, উত্তপ্ত নানুর

নির্বাচন কমিশনের কর্মীদের সামনেই সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থীকে বেলাগাম হুমকি শানালেন তৃণমূল নেতা। সিপিএমকে ভোট দিলে হাত কেটে নেওয়ার হুমকি দেন ওই তৃণমূল নেতা। এই ঘটনার জেরে উত্তেজনা ছড়ায় নানুরে।

আগামী ২৯শে এপ্রিল শেষ দফায় নানুরে ভোট। এ বিধানসভা কেন্দ্র থেকে সংযুক্ত মোর্চা থেকে সিপিএম প্রার্থী হলেন শ্যামলী প্রধান। সব রাজনৈতিক দলগুলিই নিজেদের মতো করে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। অন্যান্য দিনের মতো বীরভূমের নানুর বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত আগত্তর গ্রামে প্রচারে যান ওই সিপিএম প্রার্থী। কিন্তু অভিযোগ, গ্রামে প্রবেশ করা মাত্রই তৃণমূলের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। তৃণমূল পরিচালিত নানুর গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যা জুলি বিবির স্বামী তথা তৃণমূল নেতা নুরমান শেখ তাঁর লোকজনদের নিয়ে শ্যামলী প্রধানকে ঘিরে ধরে। শুরু হয় বিতর্ক।

আরও পড়ুন- আইএসএফ প্রার্থীর গলায় তৃণমূল কংগ্রেসকে ভোট দেওয়ার আর্জি, জোটে কী তবে ভাঙন? তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি

তৃণমূল নেতা নুরমান শেখ সিপিএম প্রার্থীকে বলেন, “ভোটের সময় ভোট চাইতে এসেছেন। আপনি পাঁচ বছরের বিধায়ক, এই পাঁচ বছর কোথায় ছিলেন? যে রাস্তা দিয়ে আপনি গ্রামে ঢুকলেন, সেটা তৃণমূল সরকারের করা, আপনি পাঁচ বছর কী করেছেন?” শ্যামলী প্রধান তাঁকে বোঝানোর চেষ্টা করলেও কোনও লাভ হয় না।

নুরমান শেখ আরও বলেন, “ভোটের সময় উস্কানি দিতে এসেছেন। এখানে সিপিএমকে কেউ একটা ভোট দেবে না, যে ভোট দেবে তাঁর হাত কেটে দেব”। নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধিদের সামনেই তৃণমূল নেতার এমন হুমকিকে ঘিরে শুরু হয় চাপানুতর। এই বিষয়ে শ্যামলী প্রধানের বক্তব্য, “আসলে নানুরে তৃণমূলের কোনও মাটি নেই। তাই মানুষকে ভয় দেখিয়ে এই নোংরা রাজনীতি করছে”।

আরও পড়ুন- একুশের ভোটে বিজেপির টার্গেট শহরাঞ্চল, ভদ্র-শ্রেণীর ভোট জিততে নয়া কৌশল গেরুয়া শিবিরের

এই বিষয়ে তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “সব প্রার্থীরই ভোট প্রচারের অধিকার রয়েছে। এভাবে কাউকে বলা যায় না। আমি নুরমান শেখকে ডেকে পাঠাবো”।

You might also like
Comments
Loading...