সব খবর সবার আগে।

‘বিজেপি করবেন না, আমাদের বিরোধিতা করলে উচ্ছেদ করে ছাড়ব’, হুমকি তৃণমূল নেতা গৌতম দেবের

তৃণমূলের বিরোধিতা করলে উচ্ছেদ করা হবে, এমনই হুমকি দিলেন ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক গৌতম দেব। এদিন অত প্রচারে বেরিয়ে এক আশ্রমিককে হুমকি দিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের বিরোধিতা করলে উচ্ছেদ করে দেব। আমি গৌতম দেব, যা বলি তাই করি। বিজেপি করবেন না। ওসব মোদী রাজ্যে হয়”। এরপরই যাঁকে হুমকি দেওয়া হয়, তিনি নিজেকে সন্ন্যাসী বলে পরিচয় দেন। তখন গৌতম বলেন, “ওসব সন্ন্যাসী বুঝি না। আমি নিজেও সন্ন্যাসী। সন্ন্যাসী দেখাবেন না”। গৌতম দেবের এই ভিডিও বেশ ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

আজ, বৃহস্পতিবার সকালে ঠাকুরনগরে প্রচারে গিয়েছিলেন গৌতম দেব। সেখানেই ওই আশ্রমিককে হুমকি দিতে দেখা যায় তৃণমূল প্রার্থীকে। এই আশ্রমিকের নাম সুধাকৃষ্ণ দাস গোস্বামী মহারাজ। নবদ্বীপের বাসিন্দা তিনি। গৌতম দেব বলেন, “বড় জায়গা দখল করে আশ্রম চালানো হচ্ছে। ওটা কোনও আশ্রম নয়। সেখানে আরএসএস-বিজেপির মিটিং হয়। সরকারি জায়গায় এটা হতে পারে না। সেটাই বলেছি”।

আরও পড়ুন- রোজভ্যালি থেকে নিয়মিত টাকা যেত তৃণমূলে! চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস

গৌতম দেবের হুমকির ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই বিতর্ক শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। এ নিয়ে সোচ্চার হয়েছে গেরুয়া শিবির। ওই আশ্রমিকের সঙ্গে দেখা করেন ওই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শিখা চট্টোপাধ্যায়। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন তিনি। বলেন, “ঠাকুরনগর শুধু নয়। চারদিকে এমন বলছেন তিনি। হতাশা থেকেই এমন করছেন। আর ওখানে তৃণমূল টাকা নিয়ে সেখানে বসিয়েছে মানুষকে। আর তাদের ধমক দিচ্ছে নির্বাচনের আগে। আমরা নির্বাচন কমিশনকেও বিষয়টি জানাব। একজন মন্ত্রী কীভাবে এমন বলতে পারেন”।

আরও পড়ুন- বামসমর্থক মহিলাদের বক্ষ ছুঁতে চাইলেন বিজেপি নেতা, তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া

জানা গিয়েছে, ঠাকুরনগরের এই জমিতে এক মন্দির রয়েছে। নিয়মিত পুজো হয় এখানে। এমনকি, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মূর্তিও পুজো হয় এই স্থানে। গত ৪-৫ বছর ধরে এখানে থাকেন সুধাকৃষ্ণ দাস গোস্বামী মহারাজ নামের ওই ব্যক্তি। এই ঘটনার বিষয়ে তাঁর বক্তব্য, এখানে কিছু লোক এসে রাজনীতির আলোচনা করেন। তিনি বারণ করেছেন তাদের। তবে তাঁর মতে, গৌতম দেব এই প্রথমবার সেখানে যান। তাঁর মতে, হয়তো গৌতম দেবের কানে কোনও কথা গিয়েছে, তাই তিনি ওভাবে তাঁর সঙ্গে কথা বলেছেন।

You might also like
Comments
Loading...