রাজ্য

চাল চুরি! জেনারেল রিলিফের চাল আত্মসাতের অভিযোগ তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে, বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের

নানান দুর্নীতিতে (corruption) এমনিতেই বিদ্ধ হয়ে রয়েছে রাজ্যের শাসক দল। পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)-অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mandal) দুই হেভিওয়েট নেতার গ্রেফতারির হেরে তৃণমূল বেশ কিছুটা কোণঠাসা হয়েছে। কিন্তু বিতর্ক কমেনি। ফের দুর্নীতির অভিযোগ উঠে এল তৃণমূলের (TMC) বিরুদ্ধে। এবার জেনারেল রিলিফের চাল চুরির অভিযোগ উঠল তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে পোলবো দাদপুর ব্লকের সাটিথান পঞ্চায়েতের সিকটা গ্রামে।

এই গ্রামের জেনারেল রিলিফ সুবিধা ভোগীদের অভিযোগ যে তারা তাদের প্রাপ্য চাল পাচ্ছেন না। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, তারা গত চার বছর ধরে জেনারেল রিলিফ পাচ্ছেন না। এই যোজনার আওতায় তাদের প্রতি মাসে ১২ কেজি করে চাল পাওয়ার কথা। কিন্তু গ্রামবাসীদের অভিযোগ তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধান সেই চাল আত্মসাৎ করেছেন। গ্রামবাসীরা জানান যে তারা পঞ্চায়েত সদস্যদের বাড়ি গিয়ে এই নিয়ে অভিযোগও জানিয়েছেন, কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। তাদের অভিযোগ, পঞ্চায়েত অফিসেই সমস্ত ষড়যন্ত্র হচ্ছে।

গ্রামের এক বাসিন্দা বলেন, “ চার বছর ধরে জেনারেল রিলিফের বরাদ্দ পাচ্ছিনা। জেনারেল রিলিফের অধীনে প্রতি মাসে ১২ কেজি করে চাল ও গম পেতাম। এই বিষয়ে পঞ্চায়েত সদস্যদের অভিযোগ জানালেও কিছুই হয় নি”।

তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য ঝুমা চক্রবর্তীর এই বিষয়ে দাবী, “জেনারেল রিলিফের বরাদ্দ পাননি বলে গরিব মানুষেরা আমার কাছে এসে দরবার করেন। আমি সেই বিষয়ে পঞ্চায়েত প্রধানকে জিজ্ঞাসা করলে তারা বলেন যে জেনারেল রিলিফের বরাদ্দ দেওয়া হয়ে গেছে। পরে সন্ধান করে জানতে পারি বরাদ্দ বিলি হয়নি। ৫১ জন সুবিধাভোগী গত সাড়ে চার বছর ধরে এই সুবিধা পাচ্ছেন না। পঞ্চায়েত কি করছে তারাই জানে। এর সঙ্গে পঞ্চায়েত প্রধান জড়িত রয়েছে। পঞ্চায়েত অফিসেই এই ঘুঘুর বাসা তৈরি হয়েছে”।

এই ঘটনায় পঞ্চায়েত প্রধান অম্বালিকা ঘোষ জানান, “সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে। মাত্র দু বছরের জেনারেল রিলিফ বাকি আছে। ব্লক থেকে মেইল না আসার কারণে আমরা তা বিলি করতে পারিনি। এরপর মেইল আসায় আমরা তার বিলি শুরু করেছি। আমাদের কাছেও কেউ অভিযোগ জানাতে আসেনি”।

এই ঘটনা নিয়ে শাসকদলকে শানাতে কসুর করেনি বিজেপি। ঘাসফুল শিবিরকে আক্রমণ করে বিজেপির রাজ্য কমিটির সদস্য ভাস্কর ভট্টাচার্য বলেন, “গোটা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে সবই চুরি হচ্ছে। এই তৃণমূলের চোর সরকারকে মানুষ আর চায় না”।

Related Articles

Back to top button