সব খবর সবার আগে।

শুভেন্দুর পদত্যাগে ‘জোশে’ বিজেপি! তৃণমূলের পার্টি অফিস ‘দখল’ করে পদ্ম পতাকা তুলল গেরুয়া শিবির

দীর্ঘদিনের টালবাহানা শেষে গতকালই মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিয়েছেন বর্তমান বঙ্গ রাজনীতির সবচেয়ে বিতর্কিত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব শুভেন্দু অধিকারী।

তাঁর ইস্তফা পত্র গ্রহণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মন্ত্রিত্ব ছাড়লেও এখন‌ও বিধায়ক পদে রয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। সৌগত থেকে শুরু করে তৃণমূলের হাইকমান্ডের এখন‌ও বিশ্বাস রয়েছে তৃণমূলেই থাকবেন শুভেন্দু। কিন্তু তাতে বিরোধী দলের উত্তেজনায় খামতি নেই। শুভেন্দুর মন্ত্রিত্ব ত্যাগের পরেই কার্যত অশান্ত হয়ে উঠল পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরি।
পূর্ব মেদিনীপুরে অধিকারী পরিবারের দাপট সন্দেহাতীত। আর নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর একাধিপত্য নিয়েও কারোর মনে কোনও সন্দেহ নেই। ২০০৭ সালের নন্দীগ্রাম আন্দোলনে কেঁপে ওঠে গোটা রাজ্য। আর যে আন্দোলনের হাত ধরেই বাংলার মসনদ দখল করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আর এই পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরিতেই তৃণমূলের কার্যালয়ে ব্যাপক ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠেছে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, রাতের অন্ধকারে খেজুরির পাটনা, কণ্ঠীবাড়িতে তৃণমূলের কার্যালয় ‘দখল’ করে নেয় তারা। তৃণমূলের পতাকা ছিঁড়ে লাগানো হয়েছে পদ্ম শিবিরের ঝান্ডা।

আজ অর্থাৎ শনিবার সকাল থেকেই বিজেপির কার্যালয় দখলের অভিযোগ নিয়ে রাস্তা অবরোধ করে তৃণমূল। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে পদ্ম শিবির। উল্টে তাদের দাবি, ‘পুনরায় খেজুরিকে অশান্ত করার চেষ্টা করছে তৃণমূল।’

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...