রাজ্য

জমায়েত দূরে থাক! বুথে বুথে হবে একুশে জুলাই! সিদ্ধান্ত তৃণমূল নেতৃত্বের!

প্রতি বছরের মতো এই বছর একুশে জুলাই শহিদ দিবসের সমাবেশ হবে না সেটা আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন তৃণমূলনেত্রী এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জমায়েত নয়। করোনাভাইরাস নিয়ে লড়াইয়ের মাঝে মনে করা হয়েছিল এবার বুঝি বিজেপির কায়দায় সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ভার্চুয়াল সমাবেশ করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

কিন্তু বিজেপির পথে হাঁটলো না তৃণমূল। শুক্রবার দলীয় সভায় ঠিক হয়েছে মমতা চাইছেন, এবার রাজ্যের সব বুথে আলাদা করে হবে শহিদ দিবস পালন।

রাজ‍্য রাজনীতিতে একুশে জুলাই বরাবারই গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন। সেই কবে থেকে এই দিনটি নানা রাজনৈতিক উত্থান পতনের সাক্ষী। এই জনসভার ভিড়ই বুঝিয়ে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের অগ্রগতি। ফি বছর এই দিনেই ধর্মতলার সমাবেশ থেকে তৃণমূলনেত্রী নতুন নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ভিড় উপচে পড়ে গোটা এলাকায়।

কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে ভিড় এড়িয়ে চলাই সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ। আর আনলকের নিয়মেও কোনও রকম সমাবেশ নিষিদ্ধ। অথচ একুশ সালের ভোটের আগে শেষ একুশের সমাবেশ তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জানা গিয়েছে, তৃণমূলনেত্রী সেই কথা স্মরণ করিয়েই নেতাদের এদিন জানিয়েছেন, এবার একুশে জুলাই পালনকে পৌঁছে দিতে হবে বুথস্তরে। সর্বত্র হবে ছোট ছোট সমাবেশ। তৃণমূল সূত্রের খবর, কোনও সমাবেশেই ২৫ জনের বেশি থাকতে পারবেন না। কলকাতায় এমনই কোনও ছোট সমাবেশ থেকে বক্তব্য রাখবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিনের বৈঠকেই ঠিক হয়েছে একুশে জুলাই পালনের আগে থেকেই বুথ স্তরে অন্যান্য কর্মসূচি পালন করতে হবে। আর সেটা শুরু হয়ে যাবে আগামী সপ্তাহ থেকেই। ৬ থেকে ১৩ জুলাই সর্বত্র কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুতে বিক্ষোভ সংগঠিত করতে হবে নেতা, কর্মীদের।

Related Articles

Back to top button