রাজ্য

সরকারি জমি জোর করে বাজেয়াপ্ত করার অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে, অভিযোগ আনল দলেরই নেতারা

এবার সরকারি জমি বেআইনিভাবে দখল করার অভিযোগ উঠল এক তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে। বিজেপি বা অন্য কোনও বিরোধী দল নয়, এই বিষয়ে অভিযোগ জানিয়েছে খোদ তাঁর দলেরই নেতারা।

এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরের তুলসিহাটা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। সেখানকার স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের অভিযোগ, তৃণমূল নেতা সন্তোষ রায় সেচ দফতরের জমি দখল করে নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন। দলের নেতারা তাঁকে বাধা দিতে গেলে পাল্টা তিনি তাদেরই হুমকি দিয়েছেন বলেও জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন- বড় সাফল্য কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের, গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে ধৃত ৩ বাংলাদেশী জঙ্গি

সূত্রের খবর অনুযায়ী, তুলসিহাটা গ্রন্থাগারের উল্টোদিকে একটি সরকারি কোয়ার্টারে দীর্ঘদিন ধরেই পরিবার নিয়ে বসবাস করেন সন্তোষবাবু। এই কোয়ার্টারের সামনেই তাঁর একটি চায়ের দোকান রয়েছে বলেও জানান স্থানীয়রা। ত্নে এই গোটা জায়গাটিই সেচ দফতরের মালিকাধীন। সেই জমিই এবার পাঁচিল দিয়ে ঘিরছেন সন্তোষবাবু, এমনটাই অভিযোগ।

স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব জানায় যে এই সরকারি জমি ঘিরতে বারণ করা হয় সন্তোষবাবুকে। কিন্তু তিনি তাতে কোনও আমল দেননি। বরং উল্টে দলের নেতাদেরই তিনি হুমকি শানিয়েছেন। এমন অবস্থায় সম্প্রতি পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এই কারণে এই বিষয়ে পুলিশি হস্তক্ষেপের দাবী তুলেছেন তৃণমূল নেতারা।

আরও পড়ুন- ভুল করে ভুল স্বীকার করা সিপিএমের পুরনো স্বভাব, তবুও দিনের শেষে ভাগ্যে লেখা ‘বিধানসভা বামশূন্য’!

এই বিষয়ে স্থানীয় এক তৃণমূল নেতা জানান, “আমাদের এখানে সরকারি জমি এমনিতেই কম। তার ওপর ও জমি দখল করছে। আমরা বলেছি তুমি যেখানে যেমন আছো থাকো, দোকানে যেমন করে খাচ্ছো খাও। কিন্তু জমি আমরা ঘিরতে দেব না”।

Related Articles

Back to top button