সব খবর সবার আগে।

অন্তর্দ্বন্দ্বে জর্জরিত শাসক দল! রাস্তা নিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধেই অভিযোগে সরব পঞ্চায়েতের সাত তৃণমূল সদস্য।

তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্বের (conflict) খবর বহুচর্চিত। কিন্তু আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে অন্তর্দ্বন্দ্ব নয় বরঞ্চ একাত্মতাই কাম্য শাসক শিবিরের। কিন্তু ভোট যত‌ই এগোক না কেন দলীয় কোন্দলের ছবিটা বদলাবার নয়। ফের একবার প্রকাশ্যে এলো তৃণমূল (TMC) বনাম তৃণমূল দ্বন্দ্ব। আর এবারের দ্বন্দ্বের কারণ রাস্তা (road)। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের এই ঘটনা নিয়ে এলাকায় শোরগোল।

ঘটনার সূত্রপাত একটি রাস্তা নির্মাণকে কেন্দ্র করে। অভিযোগ‌ উঠেছে, ওই রাস্তা তৈরির ক্ষেত্রে কোনও টেন্ডার(tender) ডাকা হয়নি। এদিকে রাস্তার অবস্থা দিন দিন বেহাল হচ্ছে। আর তাই বাধ্য হয়ে স্থানীয়রাই সেই রাস্তা সারানোর উদ্যোগ নেন। আর তা নিয়েই রীতিমতো উত্তপ্ত গোটা এলাকা। ১২ জন সদস্য রয়েছেন জামালপুর (Jamalpur) ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে। তার মধ্যে তৃণমূলের প্রতীকে নির্বাচিত সদস্য ১১ জন। একজন মাত্র বিজেপির সদস্য। তৃণমূলের ওই ১১ জন সদস্যের মধ্যে সাতজন সদস্যই বাকিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সরব হয়েছে। তারাই ব্লক, জেলা ও রাজ্য প্রশাসনের কাছে দুর্নীতির অভিযোগ জানিয়েছেন। তাঁদের অভিযোগ, রাস্তা নির্মাণ নিয়ে দুর্নীতি করা হচ্ছে। ১০০ দিনের কাজ নিয়েও দুর্নীতি করা হচ্ছে বলেই অভিযোগ।
একই সঙ্গে তারা দাবি করেছেন কমিউনিটি হল ও কালভার্ট নির্মাণও ঠিকঠাকভাবে হয়নি। তাই সাধারণ মানুষ পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তা তাঁরা কোনওভাবেই বরদাস্ত করবেন না।

তবে স্বাভাবিক ভাবেই পঞ্চায়েত প্রধান মণিকা মুর্মু (manika murmu) এইসব অভিযোগ মানতে চাননি। তিনি বলেছেন, “সব মিথ্যা অভিযোগ। আমার পঞ্চায়েতে কোনও দুর্নীতি নেই।” তবে উপপ্রধান উদয় দাস বলেন, “রাস্তা নির্মাণ হয়েছে ঠিকই। তবে রাস্তার কাজের সঙ্গে পঞ্চায়েতের কোনও সম্পর্ক নেই। পঞ্চায়েত থেকে রাস্তার কাজের কোনও টেণ্ডার হয়নি, কাউকে কাজের বরাতও দেওয়া হয়নি।”

জামালপুর ব্লক তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি তথা পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য প্রদীপ পালের কথায়, “রাস্তার কাজ নিয়ে যে দুর্নীতি হয়েছে তা ধরা পড়ে যাওয়ার পরেই পঞ্চায়েতের কর্তারা এখন উলটো কথা বলছেন তাঁরা। আর পঞ্চায়েতের কর্তাদের কথায় টাকা খরচ করে যারা রাস্তা তৈরি করেছেন তারা এখন চোখের জল ফেলে দিন কাটাচ্ছেন।”

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...
Share