রাজ্য

যেন ‘ভ্রান্তিবিলাস’! যমজ ভাইয়ের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হলেন যমজ বোন, বিয়ে দেখতে হইচই পূর্ব বর্ধমান

দুই ভাই দেখতে একই চেহারার। পাত্র সেজে এসেছেন বিয়ে করতে। এদিকে দুই কনের চেহারাও দেখতে একই রকম। দুজনই একই রঙের বেনারসি শাড়িতে বউ সেজে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন। এ যেন ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যসাগরের লেখা ‘ভ্রান্তিবিলাস’-এর চরিত্রদের সঙ্গে অনেকটাই মিল বাস্তবে।

এমন ঘটনা ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার কুড়মুনে। দুই যমজ বোন একই ছাঁদনাতলায় মালা দিলেন দুই যমজ ভাইয়ের গলায়। আর এই বিয়েতে নিমন্ত্রণ পাওয়া অতিথি ছাড়াও কয়েকশো উৎসুক জনতার ভিড় জমে। পাত্রীদের নাম বাগচী এবং পারমিতা বাগচী।

কুড়মুনের বাসিন্দা অর্পিতা এবং পারমিতা দুই যমজ বোন সদ্য কলেজ পাশ করেছেন। নিজেরাই পাত্র খুঁজে বের করেছেন অর্পিতা এবং পারমিতা। পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, দুই বোন কলেজ পাশ করার পরেই বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজতে শুরু করে দেন পরিবারের সদস্যরা।

এতে বেশ সমস্যা দেখা দেয়। ভালো পাত্র পেলেও একে অপরকে ছেড়ে বিয়ে করতে চাননি দুই বোন। অবশেষে তাঁরা নিজেরাই পাত্র খোঁজা শুরু করে দেন এবং শেষমেষ অসাধ্য সাধন করেন। পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে এই পাত্রের সন্ধান পান। যারা কাকতলীয়ভাবে যমজ ভাই। তাদের নাম হল লব এবং কুশ। মনের মতো পাত্র পেয়ে হাতছাড়া করতে চাননি দুই বোন। অবশেষে রবিবার সাতপাকে বাঁধা পড়েন তাঁরা। যমজ ভাইয়ের সঙ্গে দুই যমজ বোনের ধুমধাম করে বিয়ে হয়।

এই যুগলের বিয়ে দেখতে এলাকাবাসীদের ভিড় জমে যায়। অনেকেই সেলফি তুলে যমজ পাত্রপাত্রীর বিয়ের দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করেন। আবার অনেক অতিথিই মজার ছলে জিজ্ঞেস করেন তাঁরা একে অপরকে চিনতে পারবেন কিনা। তবে বিয়েতে খুশি পাত্রপাত্রী সকলেই। তাঁরা এখন মন দিয়ে সংসার করতে চান।

Related Articles

Back to top button