রাজ্য

নোয়াপাড়া থানার সামনে বিজেপি কর্মীদের বিক্ষোভ ভেস্তে দিল পুলিশ

লকডাউনে সরকারি নির্দেশ যাতে সাধারণ মানুষ পালন করেন তার জন্য অতি সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে দেখা গেল উত্তর ২৪ পরগনার নোয়াপাড়া থানার পুলিশকে।

নোয়াপাড়া থানার পুলিশ কর্মীরা লকডাউন সফল করার নামে সাধারণ মানুষকে প্রকাশ্যে হেনস্থা করছে এবং অনৈতিক ভাবে প্রত্যেক মানুষের থেকে টাকা আদায় করছে, এই অভিযোগে শনিবার নোয়াপাড়া থানা ঘেরাও কর্মসূচি নিয়েছিল বিজেপি কর্মীরা। নোয়াপাড়ার বিজেপি বিধায়ক সুনীল সিংয়ের নেতৃত্বে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নোয়াপাড়া থানার সামনে বিক্ষোভ দেখানোর কথা ছিল বিজেপি কর্মীদের। আসতেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংও। কিন্তু বিজেপির এই কর্মসূচি সফল হল না।

সকাল থেকেই নোয়াপাড়া থানায় আসা যাওয়ার রাস্তা গারুলিয়া মেন রোডে ব্যারিকেড করে ঘিরে দেয় পুলিশ। লকডাউন সফল করতে গারুলিয়া মেন রোডে কমব্যাট ফোর্স নিয়ে টহলদারি শুরু করে পুলিশ কর্মীরা। বিজেপি কর্মীদের নোয়াপাড়া থানার সামনে ঘেঁষতেই দেয়নি পুলিশ।

নোয়াপাড়ার বিজেপি বিধায়ক সুনীল সিং বলেন, “পুলিশের অনৈতিক কাজের বিরুদ্ধে আমাদের কর্মসূচি ছিল। আজ করতে না পারলেও আমরা থানার সামনে বিক্ষোভ দেখাব ঠিকই, সেটা রাত ১২ টায় হোক বা ভোর ৪ টেতেই হোক। নোয়াপাড়া থানার পুলিশ কর্মীরা অযৌক্তিকভাবে গরীব মানুষকে হেনস্থা করে তাদের থেকে যেভাবে টাকা তুলছে তার বিরুদ্ধে আমরা সাধারন মানুষের স্বার্থে লড়ছি লড়ব।” এদিকে নোয়াপাড়া থানার পুলিশ আধিকারিক স্বপন সাহা বলেন, “আমরা লক ডাউন সফল করতে পথে নেমেছি। অযথা মানুষ যাতে বাইরে ঘোরাফেরা না করে সেই জন্য পথে নেমেছি। জন সচেতনতা বৃদ্ধি করতেই আমরা মানুষকে বোঝাচ্ছি।” নোয়াপাড়া থানার পুলিশ কর্মীরা বিজেপির কর্মসূচি ভেস্তে দেওয়ায় এলাকায় আইন শৃঙ্খলা জনিত কোন সমস্যা হয়নি বা লকডাউনও ভাঙেনি।

Related Articles

Back to top button