রাজ্য

অবশেষে স্বস্তি! বাংলায় প্রবেশ করল বর্ষা, কোন কোন জেলায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হবে, জেনে নিন

অপেক্ষার অবসান। অবশেষে বঙ্গে প্রবেশ করল বর্ষা। উত্তরবঙ্গে মৌসুমি বায়ু প্রবেশের জেরে জেলাগুলিতে হবে বৃষ্টি। তবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে আর্দ্রতাজনিত কারণে বজায় থাকবে গুমোট ভাব। বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, গতকালই উত্তরবঙ্গে এবং সিকিমের প্রবেশ করেছে মৌসুমী বায়ু। ইতিমধ্যেই শিলিগুড়িতে বর্ষার প্রবেশ ঘটেছে। এর জেরে আগামী পাঁচ দিন উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যদিকে, মালদা এবং দিনাজপুরে এখনও বর্ষা প্রবেশ করেনি। তবে মৌসুমী বায়ু প্রবেশের দরুন উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে আগামী কয়েকদিন বৃষ্টিপাত হবে।

গত কয়েকদিন ধরেই কলকাতার আকাশে সেভাবে রোদ না থাকলেও বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় অস্বস্তি বজায় রয়েছে। আজ, শনিবারও কলকাতার আকাশ আংশিক মেঘলা। এদিন বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে তবভে ভারী বৃষ্টি হবে না। আজ কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গতকাল, শুক্রবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ সর্বাধিক ৮৯ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৭২ শতাংশ। দিন ভর আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি বজায় থাকবে আজ।

হাওয়া অফিসের খবর অনুযায়ী, দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে আবহাওয়া বদলের খুব একটা সম্ভাবনা নেই। বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টি হলেও আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি বজায় থাকবে। এর জেরে গুমোট ভাব থাকবে। আগামী কয়েকদিনে দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে বটে তবে ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা এখনই নেই। চলতি সপ্তাহের পর বদলাবে দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া।

Related Articles

Back to top button