সব খবর সবার আগে।

কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের ছায়া পড়ছে বাংলার পরীক্ষার উপর? অনির্দিষ্ট কারণে স্থগিত হল পরীক্ষা সূচি ও নির্ঘণ্ট ঘোষণা

দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতিকে নজরে রেখে কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিয়েছে এই মুহূর্তে হচ্ছেনা পরীক্ষা। আর সেই সিদ্ধান্তের ছায়াই এবার দেখা গেল রাজ্যের পরীক্ষার ওপর।

প্রসঙ্গত, আজই সাংবাদিক বৈঠক করে পরীক্ষার সূচি ও নির্ঘণ্ট ঘোষণা করার কথা ছিল রাজ্যের তরফে। কিন্তু হঠাৎ করেই তা অনির্দিষ্ট কারণে স্থগিত হয়ে গেল।

কেন্দ্র যেখানে সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরীক্ষা হবে না সেখানে মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ভবিষ্যৎ কী সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন!

প্রসঙ্গত, দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে শেষমেশ বাতিল হয়ে গিয়েছে সিবিএসই-র দ্বাদশের পরীক্ষা। আগেই দশমের পরীক্ষা বাতিল করার সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছিল। কিন্তু গতকাল উচ্চপর্যায়ের বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্পষ্ট বার্তা দেন, বর্তমান পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে পড়ুয়াদের কথা ভেবেই সিবিএসই দ্বাদশের পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে কী সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য? এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য ইতিমধ্যেই বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৭২ ঘণ্টার মধ্যে রিপোর্ট জমা দেবে এই কমিটি। পরীক্ষার না হলে কীভাবে ছাত্রছাত্রীদের মূল্যায়ন সম্ভব, তা নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে এই কমিটিকে।

যদিও আগে থেকেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে রেখেছেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হবে।

সংসদের তরফে জানানো হয়েছে এই বৈঠক আজকের জন্য রদ করা হয়েছে বাতিল হয়নি। এক সংসদ কর্তার কথায় ‌এই সাংবাদিক বৈঠক বাতিল নয়, আপাতত স্থগিত রাখা হচ্ছে। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের দিকেই তাকিয়ে রয়েছেন তাঁরা।

বর্তমানে রাজ্যে মাধ্যমিকে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ১২ লক্ষ। উচ্চ মাধ্যমিক দিতে চলেছে সাড়ে আট লক্ষ। এই ২০ লক্ষ পরীক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ নিয়ে তৈরি চরম ধোঁয়াশা। আপাতত সুপ্রিম কোর্টের রায়ের দিকে তাকিয়ে সংসদ কর্তারা।

You might also like
Comments
Loading...