রাজ্য

শুধুই দেশি নয়, দামি বিলিতি ম’দও ভরপুর খাচ্ছে বাঙালি, ম’দ বিক্রি ও খাওয়ার দিক থেকে চার নম্বরে বাংলা, বলছে সমীক্ষা

বিরোধীরা বারবার বলে এসেছে যে বাংলার রাজস্ব আয়ের বেশিরভাগটাই আসে ম’দ বিক্রি থেকে। সে কথা নেহাতই যে মিথ্যে নয়, তা প্রমাণ পেল সাম্প্রতিক এক সমীক্ষা থেকে। তবে সমীক্ষায় দেখা গেল, বাংলার থেকেও উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ ও কর্ণাটক কিন্তু ম’দ বিক্রিতে এগিয়ে।

তবে বিদেশি ম’দ বিক্রি বা খাওয়ার দিক থেকে দক্ষিণ ও পশ্চিমের রাজ্যের সঙ্গে ভালোই পাল্লা দিয়েছে বাংলা। মুম্বইয়ের ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস কনগ্লোমারেট অ্যান্টিক স্টক ব্রোকিং একটি সমীক্ষা প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা গিয়েছে যে ইন্ডিয়ান মেড ফরেন লিকার অর্থাৎ ভারতে তৈরি বিদেশি ম’দ বিক্রিতে শীর্ষ চারে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ।

ভারতে তৈরি বিদেশি ম’দ সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে কর্নাটক ও তামিলনাড়ুতে। ভারতে উৎপাদিত মোট বিদেশি ম’দের ১৬ শতাংশ করে বিক্রি হচ্ছে এই দুই রাজ্যে। তার পরই রয়েছে মহারাষ্ট্র ও পশ্চিমবঙ্গ। দেশে উৎপাদিত বিদেশি ম’দের ১০ শতাংশ করে বিক্রি করে হচ্ছে বাংলা ও মহারাষ্ট্রে।

সমীক্ষার পর দেখা যাচ্ছে যে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু বা পশ্চিমবঙ্গ রাজস্ব আয়ের জন্য যতটা না ম’দ বিক্রির উপর নির্ভরশীল, তার থেকেও বেশি নির্ভরশীল হল কর্ণাটক, পুদুচেরি, উত্তরপ্রদেশ ও উত্তরাখণ্ড। পুদুচেরির রাজস্বের ৩২ শতাংশ আসে ম’দ বিক্রি থেকে। উত্তরপ্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডের রাজস্বের ২২ ও ২৫ শতাংশ আসে ম’দ বিক্রি থেকে।

প্রেস্টিজ অ্যান্ড অ্যাবাভ শ্রেনিতে ম’দ বিক্রি বেড়েছে বলে দেখা গিয়েছে সমীক্ষায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা কালের পর অনেক কিছুই পাল্টে গিয়েছে। অনেকেই এখন রেস্তোরাঁ বা বারে গিয়ে ম’দ্যপান না করে বাড়িতে কিনে এনে ম’দ খাচ্ছেন। ভারতে হুইস্কি বিক্রির হারও অনেকটা বেড়েছে বলে জানা গিয়েছে। সেই তুলনায় কমেছে ব্র্যান্ডি বিক্রির হার।

Related Articles

Back to top button