সব খবর সবার আগে।

জাতীয় হারের থেকে কম বাংলায় বেকারত্ব, টুইট করে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

কিছু বিষয় বাকি নেই যা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেননি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার বেকারত্ব নিয়ে কেন্দ্রকে ফের কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। তথ্য দিয়ে বাংলা ও দেশের বেকারত্ব ও কর্মসংস্থানের হারের তুলনা করলেন তিনি।

শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর টুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি টুইট করেন। সেখানে সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকনমি বা CMIE-র এক রিপোর্টের তথ্য পেশ করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। যেখানে উল্লেখ রয়েছে যে করোনাভাইরাস ও লকডাউনের জেরে গোটা দেশে কর্মসংস্থান নিয়ে যে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে সেই কঠিন পরিস্থিতিতেও পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্বের হার জাতীয় গড়ের থেকে অনেকটাই কম।

গত বুধবার প্রকাশিত হয়েছে এই রিপোর্ট। সেখানে বলা হচ্ছে, চলতি বছরের জুনে দেশে বেকারত্বের হার ১১%। যা মে মাসের ২৩.৫% এর থেকে কম, তবে দেশে এখনও উদ্বেগজনক পরিস্থিতি যায়নি বলে জানাচ্ছে সমীক্ষা।

রিপোর্টে বলা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে জুন মাসে বেকারত্বের হার কমে দাঁড়িয়েছে ৬.৫%। যে প্রসঙ্গে, মুখ্যমন্ত্রীর টুইট, “করোনাভাইরাস ও আমফানের কারণে ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় ব্যাপক অর্থনৈতিক পরিকল্পনা করেছি আমরা। যার প্রমাণ মিলছে রাজ্যের বেকারত্ব হার নিয়ে CMIE-র তথ্যে।”

রাজ্যগুলির মধ্যে বেকারত্বের হার সর্বোচ্চ হরিয়ানায়, ৩৩.৬%। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ত্রিপুরা, ২১.৩%। উত্তরপ্রদেশে বেকারত্বের হার ৯.৬%। CMIE-র রিপোর্ট অনুযায়ী, লকডাউন শিথিল হওয়ায় বেকারত্বের হার কিছুটা কমেছে। জুনে দেশে মোট ৩৭.৩ কোটি নাগরিকের কর্মসংস্থান হয়েছে। আবার ৪৬.১ কোটি নাগরিক এখনও চাকরি খুঁজছেন।

You might also like
Leave a Comment