রাজ্য

কাজ আছে বলে বেরিয়েছিলেন, পাড়ার এক মহিলাকে নিয়েই পালালেন স্বামী, পুলিশে অভিযোগ স্ত্রীর, তুমুল হইচই ডানকুনিতে

এবার আর স্ত্রী নয়, বরং অন্য এক মহিলাকে নিয়ে স্বামীই পালালেন বাড়ি ছেড়ে। তাও এক বিধবা মহিলাকে নিয়ে। ঘটনা জানার পরই পুলিশের দ্বারস্থ হন স্ত্রী। এই ঘটনা ডানকুনির রঘুনাথপুরে বেশ হইচই পড়ে গিয়েছে।

ডানকুনি থানার রঘুনাথপুর দক্ষিণ পাড়ার গৃহবধূ সুতিথি মণ্ডল জানান যে গত ৫ই জানুয়ারি সকালে কাজ রয়েছে বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তাঁর স্বামী। নাম শুভ মণ্ডল। সঙ্গে নিয়ে যান নিজের সমস্ত নথিপত্র। কিন্তু বেলা গড়িয়ে গেলেও ঘরে ফেরেন না স্বামী। বারবার তাঁকে ফোন করতে থাকেন স্ত্রী সুতিথি। কিন্তু ফোনেরও কোনও জবাব দেন নি তিনি।

এরপর সুতিথি জানতে পারেন যে তাঁর স্বামী তাদের এলাকারই রিমা চৌধুরী নামের এক বিধবা মহিলার সঙ্গে পালিয়েছেন। রিমার স্বামী মারা যায় বছর চারেক আগে। তাঁর একটি ১১ বছরের ছেলে রয়েছে বলেও খবর।

সুতিথি জানান যে রিমার বাড়ি গিয়ে একটি কোর্ট পেপারে একটি লেখা পান তিনি। তাতে লেখা ছিল যে তাঁর ছেলের দায়িত্ব তাঁর শ্বশুর ও দেওরকে দিয়ে শুভর সঙ্গে বাড়ি ছাড়ছেন তিনি। শুভই তাঁর সমস্ত দায়িত্ব নেবে। এই পেপারে রিমার শ্বশুর বিন্ধেশ্বর চৌধুরী ও দেওর ছোট্টু চৌধুরী-সহ রিমার অন্যান্য আত্মীয়দের স্বাক্ষর রয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে সুতিথি বলেন, “আমার এক বছরের মেয়ে আছে। সে বাবাকে খুঁজছে। আমি চাই, স্বামীকে ফিরিয়ে দেওয়া হোক”। অন্যদিকে শুভর বাবা দেবেন মণ্ডলের বক্তব্য, “ডানকুনি থানায় অভিযোগ করেছি। ছেলে ফিরে আসুক এটাই চাই”।

সুতিথি চান পুলিশ যাতে তাঁর স্বামী ও স্বামীর প্রেমিকাকে ধরে দেয়। ডানকুনি থানার পুলিশ এই নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।

Related Articles

Back to top button