অফবিট

বিয়ের অনুষ্ঠানে ডিজের তালে নাচায় সকলের সামনে হবু বউকে থাপ্পড় হবু বরের, প্রতিবাদে আত্মীয়কেই বিয়ে করলেন তরুণী

স্থানীয় রীতি মেনেই বিয়েরন আগের দিন চলছিল নাচ-গান ও খাওয়াদাওয়ার অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানে ডিজের তালে নাচ করছিলেন হবু বধূ। তা একেবারেই পছন্দ হয়নি হবু বরের। ভরা অনুষ্ঠানে সকলের সামনে হবু বউকে থাপ্পড় মারেন ওই তরুণ। এরপরই সকলকে চমকে দিয়ে এই ঘটনার প্রতিবাদে পরিবারেরই এক আত্মীয়ের গলায় মালা দেন তরুণী।

এই ঘটনাটি ঘটেছে তামিলনাড়ুতে। জানা গিয়েছে, তরুণীর বাড়ি কুড্ডালোর জেলার পানরুতিতে। অভিযুক্ত তরুণের বাড়ি একই জেলার পেরিয়াকাট্টুপালায়মে। গত বছর ৬ই নভেম্বর তাদের বাগদান পর্ব মিটেছিল। এরপর বিয়ে ছিল গত ২০শে জানুয়ারি। বিয়ের আগের দিনে স্থানীয় প্রথা অনুসারে বিয়ের খাওয়া-দাওয়া তথা আনন্দ অনুষ্ঠান ছিল। সেখানেই হল যত গণ্ডগোল।

পরিবারের অন্যান্য আত্মীয়দের সঙ্গে ডিজের তালে নাচ করছিলেন হবু বধূ তরুণী। এর মাঝেই মেয়েপক্ষের এক আত্মীয় তরুণ এসে হবু বর ও বধূর হাত ধরে নাচ শুরু করেন। এই ব্যাপারটি একেবারেই পছন্দ করছিলেন না হবু বর।

এরপর সে পুরুষটির হাত নিজের হবু বধূর হাত থেকে ছাড়িয়ে নেন। এরপর তিনি দু’জনকেই ধাক্কা মারেন বলে অভিযোগ। মেয়েপক্ষের দাবী, এরপর ভরা অনুষ্ঠানে সকলের সামনেই হবু বউকে থাপ্পড় মারেন ওই তরুণ।

এই ঘটনার প্রতিবাদ জানান ওই তরুণী। দ্রুত কড়া সিদ্ধান্ত নেন তিনি। জানিয়ে দেন যে তিনি ওই তরুণকে বিয়ে করবেন না। মেয়ের বাড়ির লোক একথা মেনেও নেয়। এরপর পরিবারেরই সদস্য এক আত্মীয় তরুণকে বিয়ে করেন ওই তরুণী।

এদিকে হবু বর ওই তরুণ পানরুতির মহিলা পরিচালিত থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানা যায়। তিনি জানান যে তিনি হবু বউকে প্রশ্ন করেছিলেন যে সে কেন অন্যদের সঙ্গে নাচ করছে! এর উত্তরে তরুণী বলেন্ম, তাঁর ইচ্ছা। ওই তরুণ অভিযোগ করেছেন যে মেয়ের বাড়ির তরফে নাকি তাঁকে হেনস্থা করা হয়েছে ও হুমকিও দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, তরুণী সাফ জানিয়ে দেন যে তাঁর বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ৭ লক্ষ টাকা খরচ করেছে। সেই ক্ষতিপূরণ ওই তরুণের পরিবারকে দিতে হবে বলে দাবী জানিয়েছেন ওই তরুণী।

Related Articles

Back to top button