সব খবর সবার আগে।

পূজা মন্ডপে ব্যবহার করা হয়েছে জুতো-চটি! ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগে কলকাতার এই পুজো কমিটিকে আইনি নোটিস

আজ চতুর্থী। মহানগর সেজে উঠেছে আলোর রোশনাইতে। প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ইতিমধ্যেই মানুষের ভীড় জমতে শুরু করেছে। দূর থেকে হলেও ঠাকুর দর্শন করা চাই। উচ্ছ্বাসের শেষ নেই বাঙালির মনে। এদিকে নানা থিমে সেজে উঠেছে সমস্ত প্যান্ডেল। তারই মধ্যে কৃষক আন্দোলনের মতো একটি বড় ঘটনাকে কেন্দ্র করে কলকাতার বুকে সেজে উঠেছে দেবী দুর্গার মন্ডপ। সেখানে ব্যবহৃত হয়েছে জুতো চটি। আর তাকে নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা।

মন্ডপ বানাতে জুতো, চটি ব্যবহার করায় তা ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত এনেছে এই অভিযোগ তুলে দমদম পার্ক ভারত চক্রের পুজো কমিটিকে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে। পুজোর ঠিক আগের মুহূর্তে নোটিশ গিয়েছে কমিটির কাছে আর কলকাতার বিখ্যাত পূজা প্যান্ডেলের মধ্যে নাম আসে এই পূজা কমিটির। কিন্তু এবারে তাঁদের থিম দেখে মনে হয়েছে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে।

গোটা ভারত সাক্ষী রয়েছে লখিমপুরের মর্মান্তিক ঘটনার। এই প্রেক্ষাপটেকে কেন্দ্র করেই আবার মন্ডপের দেওয়াল লিখন, “মোটরগাড়ি ওড়ায় ধুলো, পিষে মরে চাষিগুলো।” বাংলার সীমা পেরিয়ে গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই পুজো। এমনকি কিষান মোর্চার সদস্যরাও এই পূজামণ্ডপকেই থেকেই আন্দোলনের হাতিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছে।

কৃষকদের উপর যে গাড়িচাপার ঘটনা রয়েছে, তাও দৃশ্যায়িত হয়েছে মণ্ডপে। আর তা ফুটিয়ে তুলতে আনুষাঙ্গিক জিনিস হিসেবে ব্যবহৃত করা হয়েছে জুতো আর চটি। যাতে মনে করা হয়েছে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হয়েছে। সেই কারণে আইনজীবী নোটিশ পাঠিয়েছে দমদম পার্কের পুজো উদ্যোক্তাদের। এই ঘটনায় সরব হয়েছে বিজেপিও। তাঁরা প্রশ্ন করেছেন, “কেন জুতো দিয়ে দেবী দুর্গার মণ্ডপ সাজানো হয়েছে?” আর সেই প্রতিবাদ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।

একদিকে সারা কলকাতা মা দুর্গার আরাধনায় মেতেছে। এদিকে এই পূজা কমিটির উদ্যোক্তারা পড়েছে সমস্যায়। এই বিষয়ে অন্যতম উদ্যোক্তা প্রতীক চৌধুরি জানিয়েছেন, “নোটিস পেয়েছি। তবে এই মুহূর্তে পুজো নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছি। তারপর পরে চিন্তা করব। আমরা জুতো বা পায়ের চিহ্ন ব্যবহার করে শাসকের ক্ষমতা দেখাতে চেয়েছি। কারোর ভাবাবেগে আঘাত করার উদ্দেশ্য কোনোভাবেই ছিল না।” এখন এই কদিন পুজো নিয়ে ভাববে দমদম পার্ক ভারত চক্র। পরে আইনি নোটিস নিয়ে বাকি সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...