সব খবর সবার আগে।

খিদে নিবারণ করছেন বিস্কুট দিয়ে? ডেকে আনছেন অজানা বিপদ

অতিরিক্ত যে কোনও জিনিসই খারাপ। সে কোনও খাবার জিনিসই হোক না কেন। অতিরিক্ত বিস্কুট খাওয়ায় মারাত্মক বিপদ ডেকে আনতে পারে। এমনই সংবাদ প্রকাশ করল একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। জানা গিয়েছে যে অতিরিক্ত বিস্কুট খাওয়ার ফলে মারাত্মক রোগ শরীরে বাসা বাঁধতে পারে।

পুজো প্রায় শুরু হয়ে গিয়েছে। রাস্তায় নেমেছে মানুষের ঢল। কিন্তু এ বছর করোনা পরিস্থিতির জেরে লোকজন খুব বেশী রাস্তাঘাটে কোনও খাবার হয়ত খাবেন না। রাস্তায় বেরিতে খিদে নিবারণের জন্য অনেকেই দু-চারটে বিস্কুটের প্যাকেট সঙ্গে রাখবেন। আবার অনেকে এমন আছেন যারা হয়ত যে কোনও সময় ইচ্ছা হলেই বিস্কুট নিয়ে চিবোতে শুরু করেন। বিভিন্ন ধরণের বিস্কুট খেতে পছন্দ করেন, এমন অনেক মানুষও রয়েছেন। অনেকের মতেই, কোনও জাঙ্ক খাবারের চেয়ে এই প্যাকেটজাত বস্তুটি হয়ত অনেক বেশী নিরাপদ। কিন্তু ন একেবারেই নয়। ওই ছোট্ট একটু বিস্কুটের প্যাকেট কি কি ভাবে আপনার শরীরের ক্ষতি করতে পারে তা জানলে বিস্কুটের প্রতি ভালোবাসা কমে যাওয়ার আশঙ্কা থাকতে পারে।

অতিরিক্ত বিস্কুট অ্যালার্জির কারণ হতে পারে। বিশেষ করে যাদের গ্লুটেন অ্যালার্জি রয়েছে, তাদের বিস্কুটে আরও বেশী ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা। তাছারাম বিস্কুটে থাকে প্রচুর ময়দা, এই কারণে অনেকেরই অর্শের সমস্যা দেখা দিতে পারে। বিস্কুটে থাকে অত্যাধিক ক্যালোরি, চিনি ও ফ্যাট, যা একেবারেই শরীরের জন্য ভালো নয়। প্রতিদিন যদি পাঁচটি করেও বিস্কুট খাওয়া হয়, তবে তা স্মরণশক্তির উপর খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে।

তবে তা বলে কি বিস্কুট খাওয়া একেবারেই ত্যাগ করবেন? তা কেন? ডাইজেস্টিভ জাতীয় বিস্কুট খান, এই জাতীয় বিস্কুটে বেশ কিছু উপকারিতাও রয়েছে। তাছাড়া, এই বিস্কুট শরীরে অনেকটা এনার্জি দেয়। আর ডাইজেস্টিভ বিস্কুটে যথেষ্ট পরিমাণ ফাইবার থাকায় এতে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাও দূর হয়। তাহলে, বিস্কুট অবশ্যই খান, কিন্তু বুঝেশুনে খান, কোনটা নিজের শরীরের জন্য ভালো আর কোনটা ক্ষতিকর।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
Comments
Loading...