অফবিটনিউজ

মৃত বাবাকে নিয়মিত ম্যাসেজ তরুণীর, হঠাৎ করে এলো সেই ম্যাসেজের রিপ্লাই৷

বাবা এবং মা এই দুজনই তাদের সন্তানদের নিকট এক শান্তি, নির্ভয়ের জায়গা৷ মাথার ওপর তাদের হাত থাকলে যেনো পৃথিবীর কোনো বাঁধায় বাঁধা হয়ে উঠতে পারেনা৷ তাদের ছায়াই সন্তানদের নিশ্চিন্তের স্থল। জীবনে আর যাইহোক, বাবা এবং মা এদের নিঃস্বার্থ ভালোবাসাই নিশ্চিন্ত ভাবে বেঁচে বেড়ে উঠতে সাহায্য করে তাদের সন্তানদের। তাই হঠাৎই এদের একজনের হাত মাথার ওপর থেকে সরে গেলেই সন্তানদের জীবনে নেমে আসে গভীর বিষাদ, দুঃখ, একাকিত্ব। হারিয়ে নিশ্চিন্তের নির্ভরতার স্থল। আর তাই সন্তানেরা যে কোনো প্রকারেই বাবা মাকে আঁকড়ে ধরে বড়ো হয়ে উঠতে চায়।

এমন ভাবেই মা বাবার ছায়ায় বেড়ে উঠতে চেয়েছিলেন দক্ষিণ আমেরিকার আর্কানসাস এলাকার নিউপোর্টের বাসিন্দা বছর তেইশের চেস্টিটি প্যাটারসন। কিন্তু তা আর সম্ভব হয়নি। হঠাৎই এক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় তাঁর পিতার৷ জীবনে নেমে আসে এক শূন্যস্থান৷ এই শূন্যস্থান এমনই এক শূন্যস্থান যা আর কেউ কখনো পূরণ করতে পারেনা। পিতার মৃত্যুতে চেস্টিটি-এর জীবন লড়াই হয়ে উঠলো আরও কঠিন৷ মানসিক দিক থেকে ভেঙে পড়তে থাকে সে, এমন সময় নিজের একাকিত্ব কাটাতেই নিজের জীবনের রোজদিনের লড়াই চেস্টিটি নিয়মিত ম্যাসেজ করতে থাকেন তাঁর বাবার নম্বরে।

দীর্ঘ চার বছর এভাবে ম্যাসেজ পাঠিয়ে গেলেও চেস্টিটি জানতেন যে তাঁর বাবার জবাব আসা কোনোদিন সম্ভবই নয়৷ তবুও তিনি তাঁর মনের শান্তির জন্য জীবনের রোজদিনের ঘটনা ম্যাসেজ করে জানাতেন তাঁর বাবাকে। এভাবেই চার চারটি বছর কেটে যায়। কিন্তু সম্প্রতি হঠাৎ করেই চেস্টিটি তাঁর পিতার নম্বর থেকে একটি রিপ্লাই ম্যাসেজ পান৷ অবাক হয়ে যাওয়া চেস্টিটি সেই ম্যাসেজ খুলে পড়তে শুরু করেন৷ না, তাঁর পিতার নয় বরং ম্যাসেজটি পাঠিয়েছেন আরেক পিতা, যিনি তাঁর একমাত্র মেয়েকে এক গাড়ি অ্যাকসিডেন্টে হারিয়েছিলেন৷

এরপর জানা যায় যে চেস্টিটি এর পিতার মৃত্যুর পর টেলেকম সংস্থার তরফে সেই নম্বরটি দেওয়া হয় অপর আরেক কাস্টমারকে৷ তিনিই গত চার বছর ধরে চেস্টিটি এর পাঠানো ম্যাসেজগুলো পড়তেন বলেও জানা যায়। রিপ্লায় ম্যাসেজে তিনি চেস্টিটিকে বলেন যে, চেস্টিটি এর প্রতিদিন ম্যাসেজ গুলো তাঁর ভীষণ প্রিয়৷ তিনিও তাঁর মেয়েকে এক গাড়ি অ্যাকসিডেন্টে হারিয়েছেন৷ এরপর থেকে চেস্টিটি এর পাঠানো ম্যাসেজ গুলোই তাঁর বাঁচার রসদ হয়ে উঠেছে৷ ঘটনার এই আকস্মিকতায় চেস্টিটি প্রথমে অবাক হয়ে গেলেও পরবর্তীতে চেস্টিটি জানান যে, তাঁর ম্যাসেজ যে একজন বাবার বাঁচার রসদ হয়ে দাড়িয়েছে তিনি তাতেই সন্তুষ্ট এবং খুশি৷

Related Articles

Back to top button