সব খবর সবার আগে।

‘ভারত-পাক ম্যাচ জাতীয় স্বার্থ বিরোধী, খেলা আর সন্ত্রাসবাদ একসঙ্গে চলতে পারে না’, বিরাট-আজম দ্বৈরথের আগে বিস্ফোরক বাবা রামদেব

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচ হতে চলেছে আজ, রবিবার। আর এই ম্যাচ নিয়ে শুধুমাত্র ভারত বা পাকিস্তানই নয়, উত্তেজনার পারদ চড়েছে গোটা বিশ্বেই। বিরাট কোহলি ও বাবর আজমের দ্বৈরথ দেখার জন্য প্রমাদ গুনছেন সমস্ত ক্রিকেটপ্রেমীরা। আর এই ম্যাচের ঠিক আগেই ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন যোগগুরু বাব রামদেব। তাঁর কথায়, ভারত-পাক ম্যাচ জাতীয় স্বার্থ বিরোধী।

বিগত কয়েক বছরে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে রাজনৈতিক এবং কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও খারাপ হয়েছে। ভারতের উপর একের পর এক সন্ত্রাসহানা হয়েছে আর এতে বারবার নাম উঠে এসেছে পাকিস্তানের। তাই রামদেবের দাবী, এমন পরিস্থিতিতে আর যাই হোক, ক্রিকেটের ময়দানে দুই দলের মুখোমুখি হওয়াটা কোনওভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়।

এদিন নাগপুর বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রামদেব বলেন, “এই পরিস্থিতিতে ক্রিকেট ম্যাচের আয়োজন রাষ্ট্রধর্ম তথা জাতীয় স্বার্থের পরিপন্থী। কারণ খেলা আর সন্ত্রাসবাদ কোনওভাবেই একসঙ্গে চলতে পারে না”।

প্রসঙ্গত, এই একই কারণে গত প্রায়ত একযুগ ধরে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কোনও দ্বিপাক্ষিক সিরিজের হয়নি। পাকিস্তানের তরফে একাধিকবার প্রস্তাব এসেছে। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফে বারবার তাতে আপত্তি জানানো হয়েছে। কেন্দ্রও সাফ জানিয়ে দেয় যে সন্ত্রাসবাদ বন্ধ না হলে দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলা সম্ভব নয়।

এই কারণেই শুধুমাত্র আইসিসি টুর্নামেন্টেই দুই দল মুখোমুখি হয়। এবারও তেমনটাই হতে চলেছে। আজ, রবিবার দুবাইয়ে সম্মুখ সমরে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। তবে বাবা রামদেব মনে করছেন, বর্তমানে সীমান্ত মাঝেমধ্যেই যেভাবে উত্তপ্ত হয়ে উঠছে, ভারত রক্তাক্ত হচ্ছে, এই অবস্থায় এই লড়াই জাতীয় স্বার্থের বিরোধী।

এদিন বলি তারকাদের মা’দ’ক যোগ নিয়েও কথা বলেন বাবা রামদেব। তাঁর কথায়, তরুণ প্রজন্ম যেভাবে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছে, তা খুবই বিপজ্জনক। অনেকেই এই তারকাদের নিজেদের আদর্শ মেনে চলে, তাদের দেখে অনুপ্রাণিত হয়। কিন্তু তাদের নানান খারাপ অভ্যাস বারবার সামনে চলে আসছে। রামদেব বাবার মতে, চলচ্চিত্র জগতকেই দায়িত্ব নিয়ে এই নোংরা সাফ করতে হবে।

You might also like
Comments
Loading...