সব খবর সবার আগে।

ICC-র আজকের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে IPL, তবে IPL এর সম্ভাব্য সূচীতে অসন্তুষ্ট স্টার স্পোর্টস

আজকে জানতে পারা যাবে আগামী আইপিএল-এর ভবিষ্যৎ কি হতে চলেছে, কিন্তু তা সবটাই নির্ভর করছে আজকের আইসিসির বোর্ড মিটিংয়ের ওপর।

করোনার জেরে এর আগে বাতিল হয়েছে অনেক টুর্নামেন্টই। এবার টি-২০ বিশ্বকাপের ভবিষ্যৎ জানার পালা। গত দুটি মিটিং-এ আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে নিজেদের সিদ্ধান্তকে ঝুলিয়ে রেখেছিল। আজ ফের ভার্চুয়াল বোর্ড মিটিংয়ের আয়োজন করেছে আইসিসি। আশা করা হচ্ছে, আজই টি-২০ বিশ্বকাপ বাতিলের প্রস্তাবে সরকারি শিলমোহর পড়ে যেতে পারে।

অন্যদিকে এবছর বিশ্বকাপ বাতিল হবে ধরে নিয়ে অনেক আগেই পরিকল্পনা করে ফেলেছে বিসিসিআই (BCCI)। তারা আইপিএলের জন্য সম্ভাব্য সুচীও তৈরি করে ফেলেছে। কিন্তু সেখানেও দেখা দিয়েছে সমস্যা। বিসিসিআইয়ের সম্ভাব্য সূচী মোটেই মনঃপুত হয়নি আইপিএল-র স্পোর্টস সম্প্রচারকারী সংস্থা স্টার স্পোর্টসের।

সূত্রের খবর, আগামী ২৬শে সেপ্টেম্বর থেকে ৮ই নভেম্বর অর্থাৎ এই ৪৪ দিনে আইপিএল টুর্নামেন্টের আয়োজন করতে চলেছে বিসিসিআই। আর এখানেই তৈরি হয়েছে সমস্যা। কারণ, ৪৪ দিনে টুর্নামেন্ট হওয়ার কারণে একদিনে দুটি করে ম্যাচ সম্প্রচার করতে হবে স্টার স্পোর্টসকে। যার ফলে চ্যানেলের টিআরপি রেটিং কমে যাবে। একদিনে একটি করে ম্যাচ হলে টিআরপি অনেক বেশি হয়। সেইজন্য তারা চাইছে ‘ডবল হেডার’ কমাতে।

তাছাড়া, ৮ই নভেম্বর টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার সপ্তাহখানেকের মধ্যেই দীপাবলী। এই সময় বিজ্ঞাপনদাতা সংস্থাগুলি অনেক বেশি বিজ্ঞাপন দেয়। তাই সেই সুযোগটা হাতছাড়া করতে চাইছে না সম্প্রচারকারী সংস্থা। অন্যদিকে বোর্ডও নিজের সিদ্ধান্তে অটল। তারা চাইছে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই আইপিএল শেষ করে দিতে। কারণ, ৩রা ডিসেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ শুরু হচ্ছে। তার আগে করোনার জেরে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনও মানতে হবে ক্রিকেটারদের। তাছাড়া ক্রিকেটারদেরও বিশ্রামেরও প্রয়োজন আছে। তাই নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে আইপিএল শেষ করতেই দৃঢ় প্রতিজ্ঞ বিসিসিআই।

তবে এ সবই দাঁড়িয়ে আছে আইসিসির সিদ্ধান্তের উপর। কিন্তু গত দুটি মিটিং এর মতো তারা যদি আজও নিজেদের সিদ্ধান্ত ঝুলিয়ে রাখে তাহলে মুশকিলে পড়বে বিসিসিআই।

প্রসঙ্গত, বোর্ড নাকি ইতিমধ্যেই বিদেশের মাটিতে টুর্নামেন্ট আয়োজন করার জন্য সরকারের কাছে আবেদন করেছে। আর সংযুক্ত আমিরশাহী বোর্ডের কর্তারাও তাদের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন বলে খবর।

You might also like
Leave a Comment