সব খবর সবার আগে।

করোনার জেরে আইপিএল বাতিলের আশঙ্কা, ফলে কমানো হবে কোহলি-রোহিতদের বেতন, ইঙ্গিত সৌরভের

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

করোনার জেরে দেশ বিদেশের কতশত টুর্নামেন্ট হয়েছে বাতিল কিংবা মাঝ পথেই স্থগিত হয়ে গেছে। ভারতেও তার অন্যথা হয়নি। করোনার জেরে বন্ধ হয়ে আছে আইপিএল। কিন্তু যদি সত্যি সত্যিই আইপিএল বাতিল হয়ে যায় তবে সমস্যায় পড়তে হবে ভারতীয় ক্রিকেটারদের। আইপিএল থেকে একটা মোটা অঙ্কের টাকা বেতন পান বিরাট কোহলি-রোহিত শর্মারা। কিন্তু যদি সত্যি এই ম্যাচ বন্ধ হয়ে যায় তবে তাদের বেতনেও কাঁচি পড়বে, এমনটাই অন্তত ইঙ্গিত দিলেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

করোনার জেরে এখন বিশ্বের অর্থনীতি মন্দার মুখোমুখি। ব্যতিক্রম নয় ক্রিকেটও। বাতিল হয়েছে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। অধিকাংশ বোর্ডই সম্প্রচারকারী সংস্থার সঙ্গে চুক্তির নবীকরণ করতে পারেনি। যার জেরে শুধুমাত্র ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (BCCI) এবং ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ECB) ছাড়া আর সব বোর্ডের আর্থিক অবস্থাই তলানিতে এসে ঠেকেছে। তবে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হওয়া আইপিএল না হলে মোটা অঙ্কের লোকসানের মুখোমুখি হবে ভারতীয় বোর্ডও। দিন দুয়েক আগেই বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমল জানিয়েছিলেন, লোকসানের অঙ্কটা বেশ বড় প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

আইপিএলই যে ভারতীয় বোর্ডের রোজগারের একটা বড় উৎস, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আর ঠিক এই কারণেই টুর্নামেন্ট বাতিল হলে ক্রিকেটারদের বেতনেও তার প্রভাব পড়বে।

‘গ্রেড এ’ ক্রিকেট তারকারা বছরে প্রায় সাত কোটি টাকা বেতন পান। এই মন্দার বাজারে এমন অর্থ যোগান দিতে দেউলিয়া হয়ে যাবে বিসিসিআই। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে সৌরভ বলেন, “এই মুহূর্তে আমাদের আর্থিক দিকটা খতিয়ে দেখতে হবে। কতটা অর্থ এখনও রয়েছে তা দেখেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কারণ আইপিএল না হলে ৪ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হবে। তবে টুর্নামেন্ট হলে বেতনের ক্ষেত্রে কোনো কাটছাঁট হবে না। দেখা যাক, লকডাউনের পর কীভাবে এই পরিস্থিতি সামলানো যায়।”

করোনার জেরে ইতিমধ্যেই কর্মী ছাঁটাই-এর সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড। এমনকি ক্রিকেটারদের বেতন কমিয়েছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডও। এবার সেই পথেই হাঁটার ইঙ্গিত দিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। তবে আইপিএল আয়োজনের আশা এখনও ছাড়ছে না বোর্ড। লকডাউন শিথিল হওয়ার পর কেন্দ্র যদি ম্যাচের ক্ষেত্রে কোনও ছাড় দেয় তবে আবার অনুষ্ঠিত হবে আইপিএল। তারই অপেক্ষায় এখন ভারতীয় বোর্ড।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.