ক্রিকেট

কি ভবিষ্যৎ অসমাপ্ত আইপিএল-এর? সময় বার করা সম্ভব হবে কিনা বলা যাচ্ছে না, বক্তব্য বোর্ড প্রেসিডেন্টের

জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে শুরু হলেও একাধিক ক্রিকেটার করোনা আক্রান্ত হ‌ওয়ায় মাঝপথে বন্ধ হয়ে যায় এই বছরের আইপিএল।

ইতিমধ্যেই সমস্ত ক্রিকেটার যে যাঁর বাড়ি ফিরে গিয়েছেন।বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে অনেকেই নিজের নিজের দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। সামনেই বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপই এখন লক্ষ্য বিরাটদের। এই পরিস্থিতিতে ভারতে পরবর্তী সময়ে আর কি স্থগিত হয়ে যাওয়া আইপিএল আয়োজন সম্ভব?

এই বিষয়ে এবার নিজের বক্তব্য রাখলেন খোদ বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সম্প্রতি এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে আইপিএল আয়োজন থেকে শুরু করে করোনা আবহে ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে বক্তব্য রাখেন সৌরভ। আইপিএল প্রসঙ্গে আবার টেনে আনেন ইপিএল বা একাধিক আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের প্রসঙ্গও। মহারাজের মন্তব্য, “বিশ্বের অন্যান্য টুর্নামেন্টেও এক বা একাধিক খেলোয়াড় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু সেই টুর্নামেন্ট বন্ধ হয়নি। এখানে ক্রিকেটাররা করোনা আক্রান্ত না হলে আইপিএলও বন্ধ হত না।”

কিন্তু সেইসঙ্গে একপ্রকার তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছে যে চলতি বছরে ভারতে যে আর আইপিএল আয়োজন সম্ভব নয়। তার কারণ জুলাইয়েই আবার শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে ভারতীয় দল। বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি এবং তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে ভারত। তবে কোহলিরা নন, সাদা বলের ক্রিকেটাররাই সেই দলে থাকবেন। আর সেজন্য ওই সময়ে আইপিএল আয়োজন করা যাবে না। বোর্ড প্রেসিডেন্টের কথায়, “ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পর জুলাই মাসে ভারতীয় দল শ্রীলঙ্কায় সফর করবে। সেখানে তারা তিনটি ওয়ানডে এবং পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে। অন্যদিকে, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধেও টেস্ট সিরিজ খেলার কথা রয়েছে। তার উপর আবার ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনের মতো একাধিক নিয়মবিধি মানতে হবে। ফলে আইপিএল ভারতে আয়োজন করাই যাবে না। এই কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি খুবই কঠিন। আইপিএলের জন্য সময় বার করতে পারব কি না, সেটা যদিও এখনই বলার সময় আসেনি।”

Related Articles

Back to top button