সব খবর সবার আগে।

লাল হলুদ শিবিরে এবার আরও তিন মিডফিল্ডার

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

করোনা মানুষের জীবনে সংক্রমন আর মৃত্যু ভয় নিয়ে এলেও ইষ্টবেঙ্গল ক্লাব কর্তাদের জন্য ওয়ার্ক ফ্রম হোম। চলতি মরশুমে করোনার কারণে সব টুর্ণামেন্ট বাতিলের খাতায় থাকলেও লাল-হলুদ শিবিরে নতুন খেলোয়াড়দের নির্বাচন প্রক্রিয়ায় কোনো বিরতি নেই। এই কঠিন সময় নিজেকে সক্ষম করে তুলতে সুযোগের সদ্ব্যবহার করছে তারা। এই করোনার আবহে প্রতি সপ্তাহেই নতুন নতুন তাবড় তাবড় খেলোয়াড়দের নাম জুড়ছে ইষ্টবেঙ্গল ক্লাবে। কিছুদিন আগেই লাল-হলুদ দলে সামিল হয়েছিলেন বলবন্ত সিং, ওমিড সিং, গুরতেজ সিং, লালরামচুল্লভা, নবীন গুরুং, আঙ্গুসানা লুয়াং, রফিক আলি সর্দার, লোকেন মিটেই, কিগান পেরিরা, গিরিক খোসলা এবং মোহাম্মদ ইরশাদ এর মতো ফুটবলাররা। এবার এই তালিকায় সামিল হলেন মিলান সিং, ইউজেনেসন লিংডো এবং মহম্মদ রফিকরা।

২৭ বছর বয়সী মিলান সিং এবার যোগ দিলেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে। এই মধ্যবয়স্ক খেলোয়াড় মিডফিল্ডার পজিশনে খেলেন। তিনি এর আগে আই-লীগ এবং আইএসএলে বারংবারই নিজের প্রতিভার প্রদর্শন দিয়েছেন। মনিপুরী এই ফুটবলার এর আগে কেরালা ব্লাস্টার্স, মুম্বাই এফসি এর জন্য খেলেছেন। তিনি জীবনের প্রথম গোল ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের বিরুদ্ধে করে নিজের ফুটবল কেরিয়ার শুরু করেছিলেন। এবার সেই ক্লাবেই আগমন হল তাঁর। শেষ মরশুম অর্থাৎ ২০১৯-২০ তে তিনি নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসির জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছিলেন।

এই তালিকার দ্বিতীয় খেলোয়াড় হলেন শিলংয়ের মধ্যবয়স্ক খেলোয়াড় ইউজেনেসন লিংডো। তিনি সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার পজিশনে খেলেন। এই মধ্যবয়সী ২০১৪-১৭ এর আই এস এলে বেঙ্গালুরু এফসির হয়ে খেলেছিলেন ২০১৭-১৯ মরশুমে আইএসএলের এটিকের হয়ে খেলেছিলেন। গত আইএসএল মরশুমে বেঙ্গালুরু এফসির হয়ে থাকলেও চোটের কারণে সেভাবে ম্যাচ খেলতে পারেননি। উল্লেখ্য ইউজেনেসন লিংডো ২০১৫ সালে তাঁর অনবদ্য পারফরম্যান্স-এর জন্য ফেডারেশনের তরফে ‘বর্ষসেরা ফুটবলার’ হয়েছিলেন।

এই তালিকার শেষ নাম কলকাতার মহম্মদ রফিক। কলকাতা নিবাসী এই খেলোয়াড় ২০১৪-২০১৮ ইস্ট বেঙ্গলের হয়ে আই-লিগে নিজের ফুটবল শিল্পের প্রদর্শন দেখান। ২৮ বছর বয়সী এই খেলোয়াড় এর আগে ২০১৪, ২০১৫ তে লোনে এটিকের হয়ে এবং ২০১৬ তে লোনে কেরালা ব্লাস্টার্সের হয়ে আইএস এলে খেলেছেন। ২০১৪ তে এটিকের হয়ে ৯০তম মিনিটে তিনি টাইটেল উইনিং গোলটি করে এটিকে-র আইএসএল ট্রফি তুলে দেন। তিনি সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার এবং রাইট ব্যাক পজিসনে নিজের শৈল্পিক প্রদর্শন দেখিয়েছেন। ২০১৮ তে মুম্বাই সিটি এফসির হয়ে আই এস এলে অংশ নেন। এবার আরো একবার তিনি তার ফুটবল শৈলীর প্রদর্শন দেখাতে চলেছেন লাল-হলুদ দলের হয়ে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.