সব খবর সবার আগে।

#RemoveATK সহ একাধিক দাবিতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ মেরিনার্সদের

কলকাতা ময়দানের ফুটবলপ্রেমীরা আবেগের বশে অনেক দূর যেতে পারে তা আরও একবার প্রমাণ হয়ে গেল। এটিকে ও কলকাতা ময়দানের প্রাচীণ ক্লাব মোহনবাগানের মার্জারে এক নতুন সত্ত্বাবিশিষ্ট দল হয়েছে যার নাম এটিকে-মোহনবাগান। যারা এই মরসুমের আইএসএলে খেলছে। দলের ভালো পারফর্মমেন্স সত্ত্বেও এই এটিকে নাম নিতেই যত ক্ষোভ মোহন সমর্থকদের। সোশ্যাল মিডিয়ায় জুড়ে মেরিনার্সদের দাবি ‘Remove ATK’। বলা যায়, এই মার্জারে শুরু থেকেই খুশি ছিলেন না সবুজ-মেরুন সমর্থকরা।

এবার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছে তারা। এবার তাদের ক্ষোভ চরমে পৌঁছেছে। রবিবারের দুপুরে প্রথমে মোহনবাগান তাঁবুতে ভিড় করে প্রতিবাদে সামিল হন অসংখ্য মোহনবাগান সমর্থকরা। হাতে ছিল প্ল্যাকার্ড, ব্যানার এবং একটাই নাম, তা হল মোহনবাগান। এই ব্যানারে লেখা ছিল ‘ATK Mohun Bagan FC’, ‘Remove ATK Kolkata protest’, ‘Remove ATK’। এরপর প্রতিবাদ মিছিল করে এই সমর্থকরা ধর্মতলার ভিক্টোরিয়া হাউসে যান, যেখানে এটিকে-মোহনবাগানের ডিরেক্টর সঞ্জীব গোয়েঙ্কার বিদ্যুৎ কোম্পানি সিইএসসি এর সদর দফতর।

মেরিনার্সদের দাবি হল এটিকে নাম থাকায় হারিয়ে যাচ্ছে তাদের মাতৃসম ক্লাবের অস্তিত্ব। ঐতিহ্য খর্ব হচ্ছে সবুজ-মেরুন দলের। সমস্যা শুধু এটিকে নাম নিয়ে নয়, দলের তৃতীয় কিট নিয়েও ক্ষোভ রয়েছে। এই বিষয়ে একাধিকবার তারা অনলাইনে বা আবেদন দিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। কিন্তু এবার সেই সবে কাজ না হওয়ায় রাস্তায় প্রতিবাদ মিছিল করলেন সমর্থকরা। কারণ এই জার্সির সঙ্গে এটিকের গত মরশুমের অ্যাওয়ে জার্সির যথেষ্ট মিল রয়েছে।

এর আগেও বিতর্ক হয়েছিল আইএসএল এর অফিশিয়াল সোশ্যাল মিডিয়া পেজগুলিতে কলকাতা ডার্বি নিয়ে একটি প্রোমো ভিডিও নিয়ে। সেই ভিডিওয়ে একটি পরিবারের বাবা-ছেলের কাহিনী দেখানো হয়। বাবা মোহনবাগানের সমর্থক, এদিকে ছেলে এটিকের বড় ভক্ত। এরপর দেখা গেল, বাপ-ছেলে নিজেদের প্রিয় দলের জার্সি ওয়াশিং মেশিনে দিল এবং দুজনেই এটিকে-মোহনবাগানের জার্সি পড়ে পাড়া জুড়ে হুঙ্কার দিল নিজেদের জয়ের। এরপর উল্টোদিকের বাড়ি থেকে রণহুঙ্কার ছাড়ল ইস্টবেঙ্গল সমর্থক বাবা-ছেলে।

সবশেষে এটিকে-মোহনবাগানের সহ মালিক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এসে স্লোগান দিলেন লেটস ফুটবল। ভারতীয় ফুটবলের অন্যতম বড় ঘটনাকে কিনা একটি ওয়াশিং মেশিনের মাধ্যমে দেখানো হল! এই নিয়ে চূড়ান্ত ক্ষিপ্ত এটিকে-মোহনবাগান সমর্থকরা। তবে রাস্তায় নেমে আসা সমর্থকদের দাবি ক্লাব কর্তৃপক্ষ মানবে কিনা এখন সেটাই দেখার।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...