সব খবর সবার আগে।

১৯০ আসনের স্বপ্নে বিভোর বঙ্গ বিজেপি! দিলীপের তত্ত্বকেই সমর্থন জানালেন অর্জুন সিং। ভাঙতে পারে মমতা-পিকে ‘গাঁটছড়া’!

দিলীপের ১৯০-এর অঙ্ককেই এবার কার্যত মান্যতা দিলেন অর্জুন সিং। বাংলায় বিজেপির সম্ভাব্য আসন নিয়ে বার্তা দিলেন তিনি। বঙ্গে বিজেপি এবার ১৯০ আসন পাবে। এই টার্গেট নিয়েই ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের রূপরেখা তৈরি করতে দিল্লিতে বৈঠকে বসে বিজেপি। সেই বৈঠকেই পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের উত্থাপন করা এই ১৯০ আসনের তত্ত্ব নিয়েই বিজেপিতে বিরোধ তুঙ্গে ওঠে বলেও জল্পনা। এবার দিলীপের এই ১৯০ আসনের তত্ত্বকেই সমর্থন জানালেন অর্জুন সিং।

দিল্লির বৈঠকে দিলীপ ঘোষ দাবি করে বসেন, তৃণমূল হটিয়ে বিজেপি এবার বাংলার ক্ষমতায় আসছে। বিজেপির ক্ষমতায় আসা সময়ের অপেক্ষা মাত্র। এবার আমরা ১৯০ আসন পাবো। তার পরেও বিজেপির ২০০-র কা্ছাকাছি আসন পাওয়া নিয়ে নিশ্চিত বলে জানিয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ। তা নিয়েই মুকুল রায়ের সঙ্গে বিরোধ বলে রটে যায় বৈঠকের সময়। পরে তা গুজব বলে জানায় বিজেপি নেতৃত্ব।

বিজেপি সভাপতির ১৯০ আসনে জয়লাভের বার্তার পর অর্জুন সিং দাবি করেন, রাজ্যের বর্তমান যা পরিস্থিতি, তাতে ১৯০ প্লাস আসন জিতব আমরা। আমরা দুই-তৃতীয়াংশেরও বেশি আসনে জয়লাভ করতে চলেছি। আমাদের ক্ষমতায় আসা একপ্রকার নিশ্চিত। এবার তৃণমূলকে হারতেই হবে। অর্জুন মনে করেন ২০২১ নির্বাচনের আগে রাজ্যে মেরুকরণ ঘটে গিয়েছে। আর তার ভিত বড় শক্ত। মমতাপন্থী ও মমতাবিরোধী পোলারাইজেশন ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গে। ঘূর্ণিঝড় সংকট এবং করোনা পরিস্থিতিতে তাঁর নেতৃত্বহীন পরিচালনা এই মেরুকরণ বাড়িয়ে দিয়েছে। সামাজিক, ধর্মীয় বা রাজনৈতিক দিক- এই রাজ্যে কোনও কিছুতেই শান্তি থাকে না।

প্রশান্ত কিশোরকে একহাত নিয়ে বিজেপি সাংসদ বলেন, প্রশান্ত কিশোরকে দিয়ে যতই কুৎসা রটাক তৃণমূল কোনও ফায়দা হবে না। বিজেপিকে এভাবে রোখা যাবে না। তৃণমূলের নোংরা খেলা অচিরেই শেষ হয়ে যাবে। কারণ আগামী দিনে প্রশান্ত কিশোরকে বের করে দেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর বিজেপির জয় হবে অবশ্যম্ভাবী।

অর্জুন সিং-এর কথায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এমন একজন ব্যক্তি, যিনি কারও পরামর্শ শোনেন না। প্রশান্ত কিশোর এখন তাঁকে অনেক পরামর্শ দিচ্ছেন। ঠেলায় পড়ে সেসব হজম করছেন তিনি। কিন্তু পিকের এই পরামর্শ আর বেশিদিন শুনবেন না মমতা। তাঁদের ‘গাঁটছড়া’ ছিন্ন করার সময় এসে গিয়েছে।

Leave a Comment