সব খবর সবার আগে।

অমানবিক চীন! ভারতে করোনার মৃতদেহ সৎকারের ছবি নিয়ে রসিকতা, সমালোচনার ঝড়ে পোস্ট মুছতে বাধ্য হল বেজিং

ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে দেশজুড়ে এক ভয়ানক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এর জেরে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। মৃত্যু মিছিল যেন থামবার নয়। এই পরিস্থিতিতে এক অমানবিক দিক দেখা গেল চীনের।

ভারতে করোনার মৃতদেহ সৎকারের ছবি  নিয়ে ঠাট্টা করতে দেখা গেল লালফৌজের সেই দেশকে। তবে পরে তীব্র সমালোচনার মুখে পরে অবশেষে পোস্ট মুছতে বাধ্য হল চীন। এরপর চীনা সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে করোনার এই কঠিন পরিস্থিতিতে ভারতের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করতে প্রস্তুত ওই দেশ।

আরও পড়ুন- ১০০ দিনের করোনা ডিউটি পূরণে স্বাস্থ্যকর্মীদের সরকারি চাকরিতে বিশেষ ছাড়, করোনা মোকাবিলায় বিবৃতি জারি মোদীর 

তিয়ানহে মহাকাশ স্টেশনের উদ্দেশে রকেটের মাধ্যমে একটি মডিউল পাঠিয়েছিল চীন। সেই রকেটের জ্বালানির অংশ থেকে নির্গত হতে থাকা বিপুল আগুনের ছবির সঙ্গে ভারতে করোনায় মৃতদের দেহ সৎকারের সময়ের আগুনের ছবি জুড়ে দেওয়া হয় একটি পোস্টে। ছবিটি পোস্ট করা হয় প্রশাসনিক একটি অ্যাকাউন্টে।

এই পোস্টে লেখা হয়, “এক দিকে চীন আগুন জালাচ্ছে, অন্য দিকে ভারত আগুন জ্বালাচ্ছে”। এরপরই ভারতে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে চীনের ঠাট্টার বিষয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়ে আন্তর্জাতিক মহল। তীব্র সমালোচনার ঝড় ওঠে চীনের বিরুদ্ধে। অবশেষে কিছুক্ষণ পর বাধ্য হয়ে সেই পোস্ট সরিয়ে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন- বিয়েবাড়িতে অভিযান চালিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন, শেষে নিজের পদ ছাড়লেন ত্রিপুরার সেই জেলাশাসক

এই ঘটনার পর সরাসরি না হলেও চীনের বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে একটি প্রতিক্রিয়া জানা গিয়েছে। চীনা বিদেশমন্ত্রী জানিয়েছেন, “কীভাবে ভারতকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চীন সাহায্য করছে, সেদিকেও সকলের নজর দেওয়া উচিত”। আবার অন্যদিকে, চীনের সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমসের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, “এই সময়ে ভারতের পাশে থাকা একান্ত প্রয়োজন। চীনের সাধারণ মানুষকেও তাঁদের মূল্যবোধ জাগ্রত রাখতে হবে। ভারতকে মানবিকতা ও সহানুভুতির চোখে দেখতে হবে”।

You might also like
Comments
Loading...